আইএস জঙ্গী দলে বাংলাদেশী তরুণ তরুণী:৮ মাসে ২০ জন আটক

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

Samiyun ISIS BD

আইএস এবং জামাত আল নুসরা তে যোগ দেবার জন্যে বাংলাদেশ থেকে তরুণ দের জঙ্গীবাদে সম্পৃক্ত করেন ব্রিটিশ নাগরিক সামিয়ুন রহমান

 কট্টর জঙ্গি গোষ্ঠী আইএসে যোগ দিচ্ছেন বাংলাদেশের নারী-পুরুষ। গত আট মাসে আইএস’র সঙ্গে জড়িত সন্দেহে ২০ জনকে আটক করা হয়েছে।  বাংলাদেশে যেসব নারী-পুরুষ আইএস’র সঙ্গে যুক্ত হচ্ছেন, তাদের প্রায় সবাই উচ্চ শিক্ষিত৷ এদের মধ্যে যারা ছাত্র, তারা নামিদামি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পড়াশোনা করেন,যাদের পরিবার বিত্তশালী৷
মে মাসে ঢাকার মিলিটারি ইনস্টিটিউট অব সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজির প্রকৌশল বিভাগের ছাত্র আশেকুর রহমানের সিরিয়ায় আইএস এ যোগ দেওয়ার খবর প্রকাশ হওয়ার পর এনিয়ে তোলপাড় হয় বাংলাদেশে৷ তাকে ফিরিয়ে আনার জন্য কূটনৈতিক তৎপরতা চালানো হলেও শেষ পর্যন্ত ফিরিয়ে আনা যায়নি৷ এর আগে গত আগস্টে  বাংলাদেশি তরুণদের আইএস এ যোগ দেওয়ার ভিডিও ইউটিউবে প্রকাশ হয় । ওই ভিডিওতে প্রকাশ, পাঁচজন ‘বাংলাদেশি’ যুবক আইএস প্রধান আবু বকর আল বাগদাদির কাছে জিহাদের শপথ নিচ্ছেন৷ তারা শপথ নেন বাংলায়৷
আইএস এ যোগ দিতে যাওয়া বাংলাদেশি এক তরুণী মাইরুনা ফারহিন (১৯)কে তুরস্ক থেকে ফিরিয়ে আনা হয়েছে। গত মাসে তিনি তুরস্কের উদ্দেশ্যে টার্কিশ এয়ারলাইনস যোগে ঢাকা করার পর বাংলাদেশ দূতাবাস বিষয়টি তুরস্ক পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে জানায়৷পরে তুরস্কের ন্যাশনাল পুলিশ তাকে ফিরতি ফ্লাইটে ঢাকায় ফেরত পাঠায়।
চলতি মাসেই পুলিশ আইএস’র সঙ্গে সম্পৃক্ততা থাকার অভিযোগে আমিনুল ইসলাম বেগ (৩৫) ও সাকিব বিন কামাল (৩০) কে আটক করা হয়৷ আমিনুল বরিশাল ক্যাডেট কলেজে থেকে পড়াশোনা করে কোকাকোলায় আইটি বিভাগে যোগ দেন৷ সাকিব ঢাকার একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে লেখাপড়া শেষ করে লালমাটিয়ার একটি ইংরেজি মাধ্যম বিদ্যালয়ে শিক্ষকতা করতেন৷

ডিএমপি’র যুগ্ম কমিশনার মনিরুল ইসলাম জানান, আমিনুল আইএসের নির্দেশিত খিলাফত প্রতিষ্ঠায় কাজ করছিল৷ তিনি গোপনে অর্থ ও কর্মী সংগ্রহ, গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিদের হত্যার পরিকল্পনাসহ বিভিন্নভাবে আইএসের সমন্বয়ক হিসেবে কাজ করছিলেন৷মনিরুল ইসলাম আরো জানান, এদের কাছ থেকে তথ্য নিয়ে পরে আরো একজনকে গ্রেপ্তার করা হয়৷ গ্রেপ্তার হওয়া ব্যক্তিরা জানিয়েছে যে, তাদের গ্রুপের ৫/৬ জন আইএস এ যোগ দিতে ইতোমধ্যে বাংলাদেশ ছেড়েছে। এদের মধ্যে নারী সদস্যও রয়েছে।

বাংলাদেশে আইএস এর অস্তিত্ব প্রথম জানা যায় ২০১৪ সালের সেপ্টেম্বরে। সেসময় সামিয়ূন রহমান (২৪)  নামে বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত ব্রিটিশ নাগরিককে ঢাকায় গ্রেপ্তার করা হয়। সামিয়ূন আইএস এর জন্য কর্মী সংগ্রহের উদ্দেশ্যেই বাংলাদেশে এসেছিল বলে স্বীকার করে গোয়েন্দা হেফাজতে ৷

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

10 − 6 =