আওয়ামী লীগের কমিটিতে প্রবাসীদের অন্তর্ভূক্ত করার জন্যে কোটা দাবি

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

অহিদুল ইসলাম, সৌদি আরব: আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয়, সহযোগী ও তৃণমূল কমিটিতে প্রবাসীদের অন্তর্ভূক্ত করার কোটা দাবি করেছেন সৌদি আরবের রিয়াদ আওয়ামী পরিষদ । প্রবাসীদের অর্থআয় দেশের উন্নয়নে শক্তিশালী অবদান রাখছে । উন্নয়ন-বাজেটে রেমিট্যান্সের বিকল্প নেই জেনেও সরাসরি আওয়ামী লীগের তৃণমুল ও কেন্দ্রিয় কমিটিতে অংশগ্রহণের জন্য সরকারি দল সুযোগ দিচ্ছে না বলে মন্তব্য করেন রিয়াদ প্রবাসী আওয়ামী সমর্থকেরা ।
এক সংবাদ সম্মেলনে রিয়াদ আওয়ামী পরিষদের সাধারণ সম্পাদক এম.আর. মাহবুব সাংবাদিকদের কাছে এই অন্তর্ভূক্তিসংক্রান্ত  প্রস্তাবসহ বিভিন্ন দাবি তুলে ধরেন।

তারা বলেন, দেশের বাইরে এক কোটি প্রবাসীর ভোটাধিকার না থাকার কারণে সংসদে কথা বলার সুযোগ যেমন নেই, তেমনি দেশের মোট জনসংখ্যার প্রায় ৩ ভাগের এক ভাগের দায়িত্ব বহন করার পরও গণতান্ত্রিক অধিকার থেকে বঞ্চিত তারা।

তাদের দাবি, এত বড় জনগোষ্ঠির দায়িত্ব বহনকারী প্রবাসীদের দেশের রাজনৈতিক কর্মকাণ্ড থেকে বঞ্চিত থাকার বিষয়টি খতিয়ে দেখা জরুরি।

এসব বিবেচনায় তাদের মতে, আওয়ামী লীগের ওয়ার্ড, ইউনিয়ন, থানা, জেলা, মহানগর ও কেন্দ্রীয় কমিটিতে যথাক্রমে ৫১, ৬৫, ৬৭, ৭১ এবং  ৭১ সদস্যবিশিষ্ট কমিটিতে আরো ১১ থেকে ১৫ জন বাড়িয়ে নির্দিষ্ট কোটায় প্রবাসী আওয়ামী সমর্থকদের অন্তর্ভূক্ত করা হলে ডিজিটাল যুগে প্রবাস থেকে সহজেই সমর্থকরা দেশে সংগঠনের সঙ্গে সার্বক্ষণিক সমন্বয় রক্ষা করতে পারবে।

এ ক্ষেত্রে সহসভাপতি ২, যুগ্মসম্পাদক ১, সাংগঠনিক সম্পাদক ১, নির্বাহী সম্পাদক ২-৩ এবং সদস্য ৫-৮। এভাবে ১১-১৫ জন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের আঞ্চলিক, সহযোগী, অঙ্গ ও কেন্দ্রিয় কমিটিতে প্রবাসী সমর্থকদের অন্তর্ভূক্ত করার সুযোগ দেওয়া দরকার।

সৌদি আরবে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ নামে সংগঠন না করার জন্য সভানেত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশ থাকায় দেশের বাইরে বাংলাদেশ আওয়ামী প্রবাসী লীগ নামে কেন্দ্র থেকে একটি আওয়ামী সংগঠনের অনুমোদন দেওয়ার জন্যও সম্মেলনে দাবি তুলে ধরেন সমন্বয়কারী এমআর মাহবুব।

এতে বক্তব্য রাখেন রিয়াদ বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের সভাপতি ডা. কাজী মাসুদ, সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সালাম, রিয়াদ আন্তর্জাতিক বিদ্যালয় ও কলেজের ভাইস প্রেসিডেন্ট কৃষিবিদ শামীম আহমেদ, ডাক্তার শাহআলম, বঙ্গবন্ধু পরিষদের সাধারণ সম্পাদক  বেলায়েত হোসেন, বঙ্গবন্ধু সৈনিক প্লাটুনের প্রতিষ্ঠাতা এডমিন ও প্রধান নির্বাহী এসএম মজিবুর রহমান, রিয়াদ আওয়ামী পরিষদের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ইসকান্দার আলী খান, সৌদি আরব যুবলীগের সভাপতি আব্দুল জলিল, কাজী সেলিম, রিয়াদ বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের উপদেষ্টা ডা. নিয়াজ মোঃ খান,  ডা. আরিফুর রহমানসহ আরো অনেকে।

তারা দাবি করেন আওয়ামী প্রবাসীদের পরিচয়পত্র দেওয়া, প্রবাসী আওয়ামী সমর্থকদের রেমিটেন্স প্রেরণের খতিয়ান তৈরি করা, সমর্থকদের দেশে নিজ পরিবারে লোকসংখ্যার পূর্ণাঙ্গ ডাটা প্রস্তুত, তৃণমূল থেকে কেন্দ্রীয় কমিটিতে অন্ততঃ ১০০ সমর্থক-প্রবাসীর অন্তর্ভূক্তির সুযোগ সৃষ্টি করা, ২০১৬-এর কেন্দ্রীয় সম্মেলনের পর প্রবাসীদের অন্তর্ভূক্তি বিষয়ে আওয়ামী লীগের গঠনতন্ত্রে আইন সংযোজন করা, সমর্থকদের তালিকা কেন্দ্রিয় দফতরে ডিজিটাল ডাটা-বেইজে সংগ্রহ কর এবং সমন্বয়কারীর ৬ সদস্যবিশিষ্ট একটি প্রতিনিধি দলের সঙ্গে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সম্মেলনের ৩ মাসের মধ্যে কেন্দ্রের তত্ত্বাবধানে বিষয়টি নিয়ে একটি পর্যালোচনা বৈঠক করা।

সম্মেলনে বিভিন্ন ইলেক্ট্রোনিক ও প্রিন্ট মিডিয়ার প্রবাসী সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন। উল্লেখ্য, প্রবাসে আওয়ামী সংগঠন করার জন্য  সৌদি আরবে আওয়ামী সমর্থকদের পক্ষ থেকে কেন্দ্রীয়ভাবে কোটা দাবি করে এবার প্রথম সংবাদ সম্মেলন করা হলো।

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

fifteen + 19 =