কুমিল্লায় দুর্ঘটনা: নিহত একই পরিবারের ৪ জন

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

কুমিল্লার দাউদকান্দি উপজেলার টামটা এলাকায় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে গতকাল সোমবার দিবাগত রাত দেড়টা নাগাদ প্রাইভেট কার-যাত্রীবাহী বাস মুখোমুখি সংঘর্ষে এক চিকিৎসক, তাঁর স্ত্রী ও মেয়েসহ ৪ জন নিহত হয়েছে, এবং গুরুতর আহত হয়েছে নিহত দম্পতির আরো দুই সন্তান।

নিহতরা হলেন: জাতীয় মানসিক স্বাস্থ্য ইনস্টিটিউটের চিকিৎসক ডা. ফজলুল বারী (৪২), তাঁর স্ত্রী আসমা-উল-হুসনা (৩৭), তাঁদের কিশোরী কন্যা ফাহমিদা ফাইরুজ (১৩ ‍) ও গৃহপরিচারিকা সীমা (২১)।

আহত দুজন হলো দম্পতির দুই শিশুসন্তান ফাইজা (৯) ও পূর্ণ (৩)। তাদেরকে প্রথমে দাউদকান্দি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়ার পর অবস্থার অবনতি ঘটলে সেখান থেকে ঢাকায় পাঠিয়ে দেয়া হয়।

আহত দুজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে দাউদকান্দি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সূত্রে জানা গেছে।

নিহত চিকিৎসকের পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, তিনি সপরিবারে কুমিল্লায় এক আত্মীয়ের বিয়ের অনুষ্ঠানে অংশ নিয়ে ঢাকায় ফিরছিলেন।

দাউদকান্দির ইলিয়টগঞ্জ হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ি জানায়, লাশ চারটি উদ্ধার করে এ ফাঁড়িতে রাখা হয়েছে।

পুলিশ আরো জানায়, ফজলুল বারী নিজেই প্রাইভেট কারটি চালিয়ে কুমিল্লা থেকে ঢাকার দিকে যাচ্ছিলেন। অন্যদিকে, ইউনিক পরিবহনের বাসটি ঢাকা থেকে চট্টগ্রাম যাচ্ছিল। টামটা এলাকায় যানবাহন দুটির মধ্যে মুখোমুখি সংঘর্ষ হলে মর্মান্তিক এই দুর্ঘটনা ঘটে।

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

eleven + eight =