‘খাঁন সাহেব’ সাম্যবাদী ভাবনায় লড়েছেন আমৃত্যু-কমরেড অশোক সাহা

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

‘ খাঁন সাহেব ‘ বটে, কিন্তু সাম্যবাদী ভাবনায় লড়েছেন আমৃত্যু : প্রয়ান দিবসে স্মরন
এপার ওপার বাংলায় ইতিহাস খনন করলে পাওয়া যাবে, জমিদার তনয় বা বনেদী পরিবারের অনেক ব্যাতিক্রমী সন্তানেরা স্বদেশ এবং শোষিত কষ্টদগ্ধ সাধারন মানুষের জন্য নিজের জীবনটি উৎসর্গ করে রেখেছিলেন কুন্ঠাহীন চিত্তে। তালিকা ছোট নয় কিন্তু। সততা, নিষ্ঠা,সত্যবাদীতা, দেশপ্রেমে টগবগে বায়ান্নের স্থিতধী মানুষটি জনাব সাইফুদ্দিন খাঁন, তেমনই উজ্জ্বল একজন। সময়ে প্রকাশ্যে;সময়ে আত্মগোপনে সারাটা জীবন অনন্য দায়িত্ব পালন করেছেন। মহান মুক্তিযুদ্ধে অত্যাচারিত হয়েছেন। বেশ কাছে থেকে এই ভাল মানুষটিকে দেখার চেনার সুযোগ আমার হয়েছে। আমাকে ‘ সাহা সাব ‘ ডাকতেন। তাঁর স্নিগ্ধ সুন্দর সন্তানেরা আমাকে বুক ভরে ’মামা’ ডাকে। আমার ভালো লাগে।

এখনকার রাজনীতিতে সৎ সত্যবাদী নিষ্ঠ ন্যায়ানুগ নয়, লাখো লাখো ভোট পাওয়া ‘ মাননীয় সম্মানিত জনপ্রতিনিধি ‘ কোটি কোটি পতি অনেক পাওয়া যাবে কালো গ্লাসের অন্তরালে নিশান পাজেরোর ভেতরে। এরাই বর্তমান সমাজের কুর্নিশ পায়। লুটেরা ধনিক, ভূমি দস্যু, আকন্ঠ ঘুষখোর, টেন্ডারবাজ, আন্তর্জাতিক অস্ত্রচোরাচালানী, রাজনৈতিক দুবৃত্ত, সাম্প্রদায়িক রগকাটা পদ্মগোখরোদের এখন রমরমা দিন। এটাই নাকি এখন রাজনীতির জমানা।

কমরেড মনিসিংহ, কমরেড মোজাফ্ফর আহম্মদের জীবন ত্যাগী রাজনৈতিক কর্মধারা অনেক সুধীর এখন বড়ই অপছন্দ। নরম চেয়ারই নাকি সর্বশেষ স্বপ্ন। ও ছাড়া জীবনের কিইবা মানে।

সুতরাং মিশে যাও, ঢুকে যাও,একাকার হয়ে যাও।

স্মারকগ্রন্থে পড়ুননা সাইফুদ্দিন খাঁনের জীবনচিত্রটি। সার্বক্ষনিক না হয়েও ব্যাঙ্কার হয়ে সর্বোচ্চ সততা সহ জীবনের শেষ অব্দি কেমন করে দেশের জন্য, সাধারনের জন্য অনেক বেশী সময় দেয়া যায়। বৃদ্ধ বয়সেও ব্যানার লাগাতে, বা পোষ্টার লাগাতে যাঁর ইজ্জত নষ্ট হতোনা। আত্মগোপন কমিউনিস্ট পার্টির কমরেড খুব বেশী নেই এখন দুনিয়ায়। তাঁদের জন্য সাইফুদ্দিন খাঁন এবং তাঁর পুরো পরিবার স্বজন( ডা. কামাল এ খান সহ) বর্গ জীবনের ঝুকি নিয়ে নি:স্বার্থে কি না করেছেন। পরিবারের কাউকে প্রতিক্রিয়াশীল শঠ প্রবঞ্চক হতে দেননি। সবই জীবনের পাঠ। তাঁর জীবন সঙ্গিনী নুরজাহান খান, চট্টগ্রামের একজন সাহসী লড়াকু নারী নেত্রী। মহিলা পরিষদের প্রাক্তন জেলা সভাপতি। তাঁকে বেশ কাছে থেকে জানি, চিনি।

আসুন, আমরা সবাই কাজ করি, সক্রিয়তায় থাকি, সব দিক থেকে নিষ্ঠ সৎ থাকি, আত্ম প্রবঞ্চক না হই, আত্ম প্রতারক না হই, সংকীর্নতার বিষে নিজেকে দগ্ধ না করি। ভাল থাকা আজীবনের আত্মসংগ্রাম। নষ্ট হওয়া মূহুর্তের ব্যাপার। পংকিল সমাজটাকে পরিবর্তনের জন্য তিলে তিলে কাজ করবো, কিন্তু পংকিলতার কাছে মাথা নোয়াবো না। এটাইতো আমাদের সাইফুদ্দিন খাঁন সাহেবদের জীবন পাঠ। জীবনের সংগ্রাম। জীবন গাঁথা। আমরা তাঁর অনুসারীরা, সহযোদ্ধারা, আত্মীয় বর্গ, গুনগ্রাহীরা, পরিবার, স্বজন, আত্মজ, আত্মজা তাঁর জীবন থেকে নানা কিছুই জানতে পারি। ক্ষতি হবেনা, নিশ্চিত লাভই হবে।

লেখক- কমরেড অশোক সাহা-সাধারণ সম্পাদক, সিপিবি, চট্টগ্রাম জেলা

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

1 × five =