গৃহকর্মী নির্যাতন: ক্রিকেটার শাহাদাত ও তাঁর স্ত্রীর বিচার শুরু

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

শিশু গৃহকর্মী নির্যাতন মামলায় জাতীয় দলের ক্রিকেটার শাহাদাত হোসেন ও তাঁর স্ত্রী জেসমিন জাহান নিত্যর বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করে বিচার শুরুর আদেশ দিয়েছে আদালত।

আজ সোমবার ঢাকার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক তানজিনা ইসমাইল এ আদেশ দেন।

আগামী ২০ মার্চ সাক্ষ্যগ্রহণের তারিখ ধার্য করা হয়েছে বলে এ আদালতের সরকারি কৌঁসুলি আলী আজগর স্বপন সাংবাদিকদের জানান।

জামিনে থাকা শাহাদাত ও নিত্য অভিযোগ গঠনের সময় নিজেদের নির্দোষ দাবি করেন।

মামলার অভিযোগপত্রে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের ৪-এর (২)খ ধারায় শারীরিক নির্যাতনের অভিযোগ আনা হয়েছে এই দম্পতির বিরুদ্ধে।

অভিযোগ প্রমাণিত হলে উভয়েরই ৭ থেকে ১৪ বছরের কারাদণ্ড এবং ৫০ হাজার টাকা জরিমানা হতে পারে।

গত বছরের ৬ সেপ্টেম্বর গৃহকর্মী হারিয়ে গেছে জানিয়ে শাহাদাত থানায় সাধারণ ডায়েরি করার কয়েক ঘণ্টা পর শিশুটিকে পাওয়া যায়।

পল্লবীর সাংবাদিক কলোনি থেকে ১১ বছর বয়সী ওই শিশুকে পেয়ে তাকে থানায় নিয়ে যান খন্দকার মোজাম্মেল হক নামের এক সাংবাদিক।

পরে শিশুটিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে পাঠানো হয়। সাংবাদিকদের কাছে শাহাদাতের বাসায় নির্যাতিত হওয়ার বিবরণ দেয় শিশুটি।

গৃহকর্মী মাহফুজা আক্তার হ্যাপিকে (১১) নির্যাতনের অভিযোগে সাংবাদিক মোজাম্মেল বাদী হয়ে গত বছরের ৬ সেপ্টেম্বর রাজধানীর মিরপুর থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করলে গা ঢাকা দেন শাহাদাত ও নিত্য।

এর মাসখানেক পর ৪ অক্টোবর নিত্যকে তাঁর বাবার বাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করা হলে, পরদিন শাহাদাতও আদালতে আত্মসমর্পণ করেন। অবশ্য পরে তাঁরা আদালত থেকে জামিনে ছাড়া পান।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা মিরপুর মডেল থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) শফিকুর রহমান গত বছর ২৯ ডিসেম্বর ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম আদালতে এই দম্পতির বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দেন।

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

seven + 13 =