জঙ্গিবাদে জড়ানোর একক কোনো কারণ নেই: মনিরুল

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

সহিংস উগ্রবাদ বা জঙ্গিবাদে জড়িয়ে যাওয়ার একক কোনো কারণ নেই বলে মনে করেন পুলিশের কাউন্টার টেররিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম (সিটিটিসি) ইউনিটের প্রধান মনিরুল ইসলাম। তার মতে, বিভিন্ন কারণে বিশেষ করে তরুণরা এতে জড়িয়ে যায়।শনিবার রাজধানীর সিরডাপ মিলনায়তনে ‘সহিংস উগ্রবাদ বিরোধী যুব সংলাপ’ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এমন মত প্রকাশ করেন। ইউএনডিপির সহায়তায় সিটিটিসি ইউনিট এ সংলাপের আয়োজন করা হয়।

জঙ্গিবাদের অভিযোগে ইতোমধ্যে গ্রেপ্তারকৃতদের কাছ থেকে প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে মনিরুল ইসলাম বলেন, উগ্রবাদে জড়িয়ে যাওয়ার অন্যতম কারণ বঞ্চনাবোধ। বৈশ্বিক প্রেক্ষাপটে বিভিন্ন দেশে মুসলিমরা বঞ্চনার শিকার হচ্ছে। সেই বোধ থেকে কিছু তরুণ উগ্রবাদে জড়িয়ে যাচ্ছে। বাংলাদেশের প্রেক্ষাপট ভিন্ন হওয়া সত্ত্বেও তারা ভুল ব্যাখ্যার কারণে ওইদিকে ধাবিত হয়। এসব বঞ্চনার প্রতিবাদ আইনগতভাবে আমরা অবশ্যই করব, কিন্তু এর কারণে কেন আমরা প্রতিবেশীকে হত্যা করব?

এছাড়াও পারিবারিক বন্ধন অনেকাংশে দায়ী রয়েছে বলেন তিনি । পরিবারের সদস্যরা সন্তানদের সময় না দেওয়া, সন্তানরা কোথায় কী করছে তার প্রতি খেয়াল না রাখার কারণে বিষয়টি টের পাওয়া যায় না। এক্ষেত্রে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের দায়বদ্ধতা রয়েছে, যেন শিক্ষার্থীদের যৌক্তিক চিন্তার জায়গাটা সমৃদ্ধ হয়।

‘‘এক্ষেত্রে দারিদ্র ও বেকার সমস্যার পাশপাশি অ্যাডভেঞ্চার প্রিয় মানসিকতাও দায়ী। সাইবার স্পেস উগ্রবাদের কারণ নয়, এটা বড় একটা প্ল্যাটফর্ম। সাইবার স্পেস থেকে কে কী গ্রহণ করবে কতটুকু গ্রহণ করবে এ বিষয়ে সচেতন করে তুলতে হবে। ’’

খেলাধূলা ও সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ডে জড়িত করা গেলে তরুণরা মননশীল হয়ে উঠবে। মননশীলতা তরুণদের উগ্রবাদ থেকে দুরে রাখবে বলেও মনে করেন তিনি।

কারাগারে গিয়েও অনেক সাধারণ অপরাধী উগ্রবাদে জড়িয়ে যেতে পারে মন্তব্য করেন দীর্ঘ দিন ধরে জঙ্গিবাদ ও জঙ্গিদের নিয়ে কাজ করা এ পুলিশ কর্মকর্তা।

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

twelve + 8 =