জাহাজ কিনতে পারছে না বিএসসি-বন্দরের শত কোটি টাকা অলস পড়ে রয়েছে -তবু আকাল?

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

জাহাজ পরিচালনাকারী প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশ শিপিং কর্পোরেশনে (বিএসসি) এখন আকাল চলছে। টাকার অভাবে প্রয়োজনীয় সংখ্যক জাহাজ কিনতে পারছে না নৌ-পরিবহন মন্ত্রণালয় নিয়ন্ত্রণাধীন এই সংস্থাটি। অথচ একই মন্ত্রণালয়ের অধীনে পরিচালিত চট্টগ্রাম বন্দর উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের শত শত কোটি টাকা অলস পড়ে আছে।বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত নৌ-পরিবহন মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির বৈঠকে একই মন্ত্রণালয়ের নিয়ন্ত্রণাধীন দুটি প্রতিষ্ঠানের বিপরীতমূখি এই চিত্র তুলে ধরা হয়।কমিটির সদস্যরা বিশদ আলোচনা শেষে জাহাজ  কেনার জন্য চট্টগ্রাম বন্দর থেকে প্রয়োজনীয় অর্থ বিএসসিকে ঋণ হিসেবে প্রদানের সুপারিশ করেন। এক্ষেত্রে মন্ত্রণালয়কে অভিভাবকের ভূমিকা নিয়ে দুটি প্রতিষ্ঠানের মাঝে সমন্বয় সাধনের প্রয়োজনীয় উদ্যোগ নেওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়। কমিটির সভাপতি মেজর (অব.) রফিকুল ইসলাম, বীর উত্তমের সভাপতিত্বে বৈঠকে কমিটির সদস্য নৌ-পরিবহন মন্ত্রী শাজাহান খান, তালুকদার আব্দুল খালেক, মো. আব্দুল হাই, মো. নূরুল ইসলাম সুজন, এম আব্দুল লতিফ ও মমতাজ বেগম এবং সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।      file

বলা হয়, দেশের জাহাজ কম থাকলেও বন্দরে নোঙ্গর করা বিদেশী জাহাজের আয় থেকেই ফুলে-ফেঁপে উঠেছে প্রতিষ্ঠানটি।

বৈঠকে জানানো হয়, পায়রা সমুদ্র বন্দরের জন্য স্বল্প, মধ্য ও দীর্ঘ মেয়াদি পরিকল্পনা বাস্তবায়িত হলে দেশের দক্ষিণাঞ্চলে আধুনিক বন্দর সুবিধা সম্বলিত পরিবেশ বান্ধব বন্দর গড়ে উঠবে। পায়রা বন্দরের মাধ্যমে দেশের মধ্য দক্ষিণাঞ্চলের জেলা সমূহে মালামাল পরিবহন ও বিতরণ সহজতর হবে, শিল্পায়ন বৃদ্ধির কারণে ব্যাপক কর্মসংস্থান সৃষ্টি হবে এবং দেশের মানুষের আর্থ সামাজিক অবস্থার অভূতপূর্ব উন্নয়ন হবে। কমিটি সবক’টি বন্দরে প্রায় একই ধরনের অর্গানোগ্রাম তৈরির জন্য মন্ত্রণালয় থেকে একটি কমিটি গঠন করার বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশ করেছে। এছাড়া বৈঠকে নৌ-পরিবহন মন্ত্রণালয়ের টেন্ডার মূল্যায়ন কমিটিতে সমুদ্র পরিবহন অধিদপ্তরের একজন প্রকৌশলীকে অন্তর্ভূক্ত করার বিষয়ে মন্ত্রণালয়কে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশ করা হয়েছে।

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

12 + 4 =