ট্রাম্পের সঙ্গে ঐতিহাসিক বৈঠকে কিমকে নিরাপত্তা দেবে চীনের অত্যাধুনিক যুদ্ধবিমান

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

নিজের নিরাপত্তা নিয়ে বরাবরই চিন্তায় থাকেন উত্তর কোরিয়ার সর্বাধিনায়ক কিম জং উন ৷ প্রাণসংশয়ে তিনি দেশের বাইরে যান না৷ এমন কি জাতিসংঘের বৈঠকেও না ৷ তবে নিরাপত্তার ইস্যুতে কেবলমাত্র চীনকে চোখ বন্ধ করে ভরসা করেন তিনি ৷ আর সেই ভরসার জায়গা থেকেই মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে আসন্ন বৈঠকেও তিনি সঙ্গী করেছেন চীনকে ৷ সূত্রের খবর, যখন দেশীয় বিমানে করে কিম সিঙ্গাপুরের উদ্দেশে যাবেন, তখন তাঁর বিমানকে কড়া প্রহরা দিয়ে নিয়ে যাবে চীনের বিমানবাহিনীর একটি অত্যাধুনিক যুদ্ধবিমান ৷ আন্তর্জাতিক বিশেষজ্ঞদের মতে, ওয়াশিংটনের কাছে পিয়ংইয়ংয়ের এই পদক্ষেপ যথেষ্ট অস্বস্তিকর

হংকং-এর একটি সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, আগামী ১২ জুন অনুষ্ঠিতব্য ঐতিহাসিক বৈঠকের আগেই উত্তর কোরিয়ার উদ্দেশে বিমানবাহিনীর একটি বিমান পাঠাতে চলেছে চীন, নর্থ কোরিয়া এয়ারফোর্স ওয়ানের সঙ্গে কিমের নিরাপত্তা বলয়ে যোগদান করবে সেই যুদ্ধবিমানটিও৷ এর ফলে কেবল কিমের নিরাপত্তা জোরদারই হবে না৷ পাশাপাশি ওয়াশিংটন ও সিওলকে বার্তা দেওয়া যাবে বেজিং ও পিয়ংইয়ং-এর জোট কতটা মজবুত ৷৷

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

twenty − eleven =