নতুন ইনিংসের সূচনা – পাকিস্তানের বাইশতম প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিলেন ইমরান খান

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

রাষ্ট্রপতি ভবনে শনিবার শপথ অনুষ্ঠান শুরু হওয়ার কথা ছিল সকাল সাড়ে ন’টায়। শুরু হয় সামান্য পরে, দশটায়। জাতীয় সংগীতের পর কোরানের অংশবিশেষ পাঠ দিয়ে শুরু হয় অনুষ্ঠান। ইমরান খানকে শপথ পাঠ করান রাষ্ট্রপতি মামনুন হুসেন। কালো শেরওয়ানিতে এসেছিলেন তিনি। কয়েকটি উর্দু শব্দ উচ্চারণ করতে গিয়ে সমস্যা হওয়ায় দৃশ্যতই ছিলেন কিছুটা নার্ভাস। দর্শকাসনে তখন ইমরানের স্ত্রী বুশরা মানেকা, চলতি বছরের গোড়ায় বিয়ের পর এই প্রথম তিনি প্রকাশ্যে। পরে এদিনই কুড়িজনের মন্ত্রিসভা গঠন করেছেন তিনি। হুসেইন কুরেশিকে বিদেশমন্ত্রী করে ১৫-জন কেন্দ্রীয় মন্ত্রীসহ পাঁচজন উপদেষ্টা নিয়োগ করেছেন।

পাকিস্তান সংসদে শুক্রবার প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হয়েছেন ইমরান খান। পাকিস্তান পি টি আই চেয়ারম্যান ইমরান পেয়েছেন ১৭৬টি ভোট, যেখানে পি এম এল-এন সভাপতি শাহবাজ শরিফ পেয়েছেন ৯৬টি ভোট। বিলাওয়াল ভুট্টো জারদারির পি পি পি-র ৫৪ জন ভোটদানে বিরত ছিলেন। ৩৪২-সদস্যের সংসদে সরকার গঠনের জন্য প্রয়োজন ছিল ১৭২টি ভোট। সামান্য ব্যবধানে জিতেছেন তিনি।

সংসদে তাঁর সামান্য গরিষ্ঠতা এবং সেনাবাহিনীর সঙ্গে যোগাযোগের কারণে ইমরান খান সন্ত্রাসবাদীদের বিরুদ্ধে কতটা কি পদক্ষেপ নিতে পারবেন , তা বলবে ভবিষ্যৎ।

স্বাধীনতা উত্তর পাকিস্তানে প্রায় অর্ধেক সময় সেনাশাসন বাদে দেশের ক্ষমতা গিয়েছে হয় পাকিস্তান মুসলিম লিগ-নওয়াজের (পি এম এল-এন) হাতে, অথবা বেনজির ভুট্টোর পাকিস্তান পিপলস পার্টির (পি পি পি) হাতে।যদিও পি টি আই দলের উপর সেনাবাহিনীর যথেষ্ট প্রভাব রয়েছে বলে অভিযোগ।

১৯৯২, ক্রিকেটে বিশ্বকাপ এনে দেওয়ার চার বছর বাদে, বাইশ বছর আগে, ১৯৯৬ সালে পি টি আই তৈরি করেছিলেন ইমরান খান। ‘কোনও স্বৈরাচারীর কাঁধে চেপে আমি এখানে আসিনি। বাইশ বছর লড়াই চালানোর পর আজ আমি এখানে। একমাত্র আমার নায়ক জিন্নাহ আমার চেয়ে বেশি সময় লড়াই করেছেন’  বলেন পাকিস্তানের নব্য প্রধানমন্ত্রী ।

 

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

4 + fourteen =