না’গঞ্জে বাসে পেট্রোল বোমা হামলা, শিবিরকর্মী আটক

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

কামারুজ্জামানের মৃত্যুদণ্ড বহালের পর ডাকা হরতালের আগের দিন নারায়ণগঞ্জ শহরে পেট্রোল বোমা ছুড়ে বাসে আগুন দিয়েছে জামায়াত-শিবিরের কর্মীরা। তবে, এই ঘটনায় কেউ হতাহত হয়নি।সোমবার বিকালে ডনচেম্বার এলাকায় তারা বেশ কয়েকটি হাতবোমারও বিস্ফোরণ ঘটায়।এই ঘটনায় পুলিশ ইউসুফ হোসেন নামের এক শিবিরকর্মীকে আটক করেছে।

প্রত্যক্ষদর্শীর বরাত দিয়ে নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানার ওসি মঞ্জুর কাদের জানান, বিকাল ৪টার দিকে ডন চেম্বার এলাকায় ১০/১২ জন যুবক আনন্দ পরিবহনের একটি যাত্রীবাহী বাসের গতিরোধ করে।

পরে লাঠিসোটা দিয়ে বাসটির (নারায়ণগঞ্জ-ব-১১-০০৪৪) কাচ ভাংচুর শুরু করলে ভয়ে যাত্রীরা লাফিয়ে নেমে যায়।এক পর্যায়ে তারা ৩/৪টি পেট্রোল বোমা মেরে বাসে আগুন ধরিয়ে দেয়। একই তারা বেশ কয়েকটি হাত বোমার বিস্ফোরণ ঘটিয়ে পালিয়ে যায়।

পরে ফায়ার সার্ভিস গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।

এই ঘটনায় আটক ইউসুফ হোসেনের বাড়ি বন্দর উপজেলার মদনগঞ্জে বলে জানান ওসি।

হামলার শিকার বাসটির চালক মো. সানি জানান, জামায়াতে ইসলামী ও ইসলামী ছাত্র শিবিরের কর্মীরা আতর্কিতভাবে তার গাড়িতে হামলা ও ভাংচুর চালিয়ে পেট্রোল বোমা মেরে আগুন ধরিয়ে দেয়।

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত যুদ্ধাপরাধী কামারুজ্জামানের রায় পুনর্বিবেচনার আবেদন খারিজ হওয়ার পর নোয়াখালীতে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে জড়িয়েছে জামায়াত-শিবিরের কর্মীরা। এতে গুলিতে শিবিরের এক সাথী নিহত হয়েছেন।

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

4 + twenty =