পাচার হওয়া অর্থের ১ কোটি ৭০ লাখ টাকা ফেরত দেবে ফিলরেম

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

নিউইয়র্কের ফেডারেল রিজার্ভ ব্যাংক থেকে বাংলাদেশ ব্যাংকের ৮১ মিলিয়ন মার্কিন ডলার চুরি হওয়ার পর এই অর্থ ফিলিপাইনের মুদ্রা পেসোতে রূপান্তর করা প্রতিষ্ঠান ‘ফিলরেম’ বাংলাদেশের কাছে দুঃখ প্রকাশ করেছে। একই সঙ্গে প্রতিষ্ঠানটি অর্থ রূপান্তর থেকে প্রাপ্ত আয়ের থেকে এক কোটি ৭০ লাখ টাকা বাংলাদেশকে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

বৃহস্পতিবার ফিলিপাইনে সিনেটের শুনানিতে ফিলরেম সার্ভিস করপোরেশনের সভাপতি সালুদ বাউতিস্তা বলেন, ‘আমরা দুঃখিত। বাংলাদেশ সরকারের কাছে তাদের প্রতিষ্ঠান ১০ মিলিয়ন পেসোর একটি চেক পাঠাবে। এটা ওই নির্দিষ্ট পরিমাণ অর্থ রূপান্তরের তাঁদের প্রতিষ্ঠানের লাভের এক শতাংশের চার ভাগের এক ভাগ।’

এ্নই শুনানির সময় বাংলাদেশে নিযুক্ত ফিলিপাইনের রাষ্ট্রদূত রিচার্ড গোমেজ সেখানে উপস্থিত ছিলেন।

সালুদ দাবি করেন, তাঁদের প্রতিষ্ঠান ফিলরেম জানত না যে এই টাকা বাংলাদেশ থেকে চুরি করে আনা হয়েছিল।তিনি দাবি করেন , তারা সেই অর্থ বাজেয়াপ্ত করতে চেয়েছিলেন।

তিনি এ ও বলেন, সন্দেহভাজন উৎসের সেই অর্থ পেসোতে রূপান্তরের ব্যাপারে  তারা শুরুতে আগ্রহী ছিলেন না।

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

one + fifteen =