প্রচুর পরিমাণ মেয়াদোত্তীর্ণ রাসায়নিক :ইউনাইটেড হাসপাতালকে ২০ লাখ টাকা জরিমানা

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

রোগ নির্ণয়ের পরীক্ষায় মেয়াদোত্তীর্ণ রাসায়নিক ব্যবহারসহ কয়েকটি অপরাধে গুলশানের অভিজাত ইউনাইটেড হাসপাতালকে ২০ লাখ টাকা জরিমানা করেছেন র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত।
বুধবার এ অভিযান চালানো হয় বলে র‌্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারওয়ার আলম জানিয়েছেন।
তিনি জানান, দুপুর থেকে শুরু করে সন্ধ্যা পর্যন্ত ইউনাইটেড হাসপাতালে অভিযান চালানো হয়। এ সময় হাসপাতালটির ল্যাবরেটরিতে গিয়ে দেখা যায় অপরিচ্ছন্ন পরিবেশ। সেখানে প্রচুর পরিমাণ মেয়াদোত্তীর্ণ রাসায়নিক (রি-এজেন্ট) পাওয়া যায়। সেগুলো নির্ধারিত তাপমাত্রায় সংরক্ষণ করা হয়নি। ফলে অনেক রাসায়নিক জমে বরফ হয়ে ছিল।
সারওয়ার আলম জানান, এসব ব্যবহার করে রোগ নির্ণয়ের পরীক্ষা করা হলে সঠিক ফল না পাওয়ার সম্ভাবনাই বেশি। এ ছাড়া অস্ত্রোপচারে ব্যবহৃত সুতার বেশিরভাগই ছিল মেয়াদোত্তীর্ণ। এসব সুতা দিয়ে সেলাই করা হলে ক্ষতস্থানে সংক্রমণ হতে পারে। এসব অপরাধে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে ২০ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়।
ইউনাইটেডের মতো বড় হাসপাতালে এমন চিত্র পাওয়া দুঃখজনক বলে মন্তব্য করেন তিনি।
সারওয়ার আলম আরও জানান, এর আগে নকল-ভেজাল ওষুধ সরবরাহকারী একজনকে গ্রেফতার করা হয়েছিল। সে মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ নতুন করে প্যাকিং করে বিভিন্ন স্থানে সরবরাহ করে। তার সরবরাহের তালিকায় এ হাসপাতালটিও ছিল। তবে গতকালের অভিযানের সময় সেখানে কোনো নকল বা ভেজাল ওষুধ পাওয়া যায়নি।
অভিযানের বিষয়ে জানতে ইউনাইটেড হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তারা পরে লিখিত ব্যাখ্যা দেওয়ার কথা জানায়।
এর আগে গত মাসে ঢাকার অ্যাপোলো হাসপাতালে অভিযান চালান র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত। সে সময় নকল ওষুধ পাওয়ায় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে পাঁচ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়।

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

19 + nine =