প্রতিবন্ধী কিশোরীকে ধর্ষণকারী মাদ্রাসা ছাত্র রাসেলকে ধরলো জনতা

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

চট্টগ্রামের মিরসরাই উপজেলার জোরারগঞ্জ থানার বারইখালী গ্রামে গত রোববার রাতে ১৭ বছরের এক মানসিক প্রতিবন্ধী কিশোরীকে ধর্ষণের সময়ে মো. রাসেল (১৮) নামে মাদ্রাসার এক ছাত্রকে ধরে পুলিশে সোপর্দ করেছে জনতা। তার বিরুদ্ধে মামলা করেছেন নির্যাতিতার বাবা।মেয়েটির বাবা জানিয়েছেন, ছোটবেলায় ডায়াবেটিক রোগে ভুগে তার মেয়ের হাত বা পা কিছুটা বেঁকে গেছে। এছাড়া, সে ঠিকমত কথা বলতে পারেনা।
ধর্ষণের শিকার কিশোরীকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে ভর্তি করা হয়েছে।
ধর্ষণের শিকার কিশোরীর বাবা জানান, রোববার রাতে তাঁদের বাড়ির পাশে এক আত্মীয়ের বিয়ের অনুষ্ঠান ছিল।

রাত সাড়ে আটটার দিকে তাঁর মেয়েকে ঘরে রেখে পরিবারের অন্য সদস্যরা বিয়ের অনুষ্ঠানে যান তিনি।

তিনি বলেন, তার স্ত্রী হঠাৎ খোঁজ নিতে বাড়িতে গিয়ে দেখতে পান মেয়ের হাত বেঁধে এক যুবক তাকে ধর্ষণ করছে। লোকজনের উপস্থিতি টের পেয়ে ধর্ষণকারী রাসেল দৌড়ে পালিয়ে যায়। পরে গ্রামের লোকজন ধাওয়া করে তাকে ধরে ফেলে। স্থানীয় জোরারগঞ্জ থানা পুলিশের এসআই আব্দুল হামিদ সূর্যবার্তা টোয়েন্টিফোরডটকমকে বলেন, ১৮ বছরের ঐ মাদ্রাসা ছাত্র তাদের হেফাজতে রয়েছে। তার বিরুদ্ধে ধর্ষণের মামলা হয়েছে।

 

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

14 + five =