বজ্রপাতে সারাদেশে বাবা-ছেলেসহ ১৭ জনের মৃত্যু

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

আজ রোববার  ভোর থেকে দুপুর পর্যন্ত সারাদেশে বজ্রপাতসহ বৃষ্টি হয়েছে।বজ্রপাতে সারাদেশে বাবা-ছেলেসহ ১৭ জনের মৃত্যু হয় এবং ১১ জন আহত হয়েছেন।

গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার মাটিকাটা এলাকায় বজ্রপাতে জাফরুল ইসলাম (২০) নামে এক যুবক ও শ্রীপুর উপজেলার ধলাদিয়া এলাকায় বিলকিস বেগম (৪৫) নামে এক নারী নিহত হয়েছেন। ঘটনায় আহত হয়েছেন শৌরভ, মনি সামান্ত, লতা, আলেয়া, তাপসি ও জহিরুল ইসলাম।

সিরাজগঞ্জ জেলায় বজ্রপাতে বাবা-ছেলেসহ পাঁচজনের মৃত্যু হয়েছে। সিরাজগঞ্জের কামারখন্দ, কাজিপুর ও শাহজাদপুর উপজেলায়  বজ্রপাতে এ প্রাণহানি হয়।নিহতরা হলেন- কামারখন্দের পেস্তক কুড়া গ্রামের কাদের হোসেন (৩৭), কাজিপুর উপজেলার ডিগ্রি তেকানী গ্রামের মৃত পারেশ মণ্ডলের ছেলে শামছুল মণ্ডল (৫৫) ও তার ছেলে আরমান (১৪), শাহজাদপুর উপজেলার ছয়আনিপাড়ার ফারুক হাসানের ছেলে নাবিল (১৭) ও একই মহল্লার রাশেদুল হাসানের ছেলে পলিং (১৭)। নাবিল ও পলিং শাহজাদপুর ডিগ্রি কলেজের প্রথম বর্ষের ছাত্র।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া উপজেলায় ধান কাটার সময় বজ্রপাতে আব্দুর রহিম (৫০) নামে এক কৃষকের মৃত্যু হয়েছে। সকাল সাড়ে ৯টার দিকে উপজেলার মোগড়া ইউনিয়নের দরুইন গ্রামে এ দুর্ঘটনা ঘটে। রহিমের বাড়ি মৌলভীবাজার জেলায় বলে জানিয়েছে পুলিশ। নোয়াখালীর মাইজদী ও সেনবাগ উপজেলায় বজ্রপাতে দু’জনের মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরো দু’জন।

নিহতরা হলেন নোয়াখালী পৌরসভার ৩নং ওয়ার্ডের লক্ষ্মীনারায়ণপুর গ্রামের সোহেল রানার ছেলে পিয়াল (১৩) ও ভোলার তমিজ উদ্দিন উপজেলার সোনাপুর গ্রামের মো. রজন মিয়ার ছেলে শাহীন (২৬)। আহতরা হলেন- আব্বাস (২৫) ও মনির হোসেন (৫৫)। তাদের বাড়ি একই এলাকায়।

নওগাঁর সাপাহারে বজ্রপাতে সোনাভান (২২) নামে এক নারীর মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় তার স্বামীসহ আরো তিনজন আহত হয়েছেন। দুপুরে উপজেলার রামাশ্রম গ্রামে এ দুর্ঘটনা ঘটে। এছাড়াওপোরশা উপজেলায় মুক্তার হোসেন (১৪) নামে এক স্কুলছাত্রের মৃত্যু হয়েছে বজ্রপাতে

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

7 + 18 =