বদরগঞ্জে মৃত্যুশয্যায় পঞ্চম শ্রেণীর ধর্ষিতা শিক্ষার্থী

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

রংপুরের বদরগঞ্জে পঞ্চম শ্রেণীর এক শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এতে শিশুটি অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়ে। লোকলজ্জার ভয়ে তার গর্ভপাত ঘটানো হলে অসুস্থ হয়ে পড়ে ওই শিশুটি। পরে রক্তাক্ত অবস্থায় তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেঙ্ েভর্তি করা হয়। মর্মান্তিক এ ঘটনাটি ঘটেছে বদরগঞ্জ পৌরশহরের জামুবাড়ী বানিয়াপাড়া এলাকায়।

গতকাল বুধবার ভুক্তভোগি ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, একই এলাকার জয়নাল আবেদীনের ছেলে আমিনুল ইসলাম (২৫) নানা প্রলোভন দেখিয়ে নিজ বাড়িতে ডেকে নিয়ে শিশুটিকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। বিষয়টি গোপন রাখতে শিশুটিকে প্রাণনাশের হুমকি দেয় পাষ- আমিনুল ও তার পরিবার। এক সময় শিশুটি ছয় মাসের অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়ে। শিশুটির শারীরিক অবস্থার পরিবর্তন হলে তার মা চিকিৎসকের কাছে নিয়ে যান। এতে দেখা যায় শিশুটি ছয় মাসের অন্তঃসত্ত্বা। শিশুটির মা হতভম্ভ হয়ে পড়েন।

লোকজন জানাজানির ভয়ে গত বৃহস্পতিবার শিশুটিকে রংপুরের একটি ক্লিনিকে নিয়ে গর্ভপাত ঘটানো হয়। ওইদিনই আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাকে নিজ বাড়িতে নিয়ে আসা হয়। বাড়িতে আসার পর শিশুটির শারিরিক অবস্থা অবনতির দিকে যায়। গতকাল বুধবার শিশুটির রক্তক্ষরণ শুরু হলে তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেঙ্ েভর্তি করা হয়। এদিকে ঘটনা জানাজানি হওয়ার পর নিজ বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে যায় পাষ- আমিনুল। শিশুটির মা বলেন, পাশের বাড়ির পাষ- আমিনুল আমার মেয়েকে ডেকে নিয়ে ক্ষতি (ধর্ষণ) করেছে। এখন অবুঝ মেয়েটা বারবার আত্মহত্যা করতে চাচ্ছে। আমি ওই পাষণ্ড আমিনুলের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাই।

শিশুটির বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক গোলাম মওলা বলেন, ঘটনা শুনে আমরাও হতভম্ভ হয়ে গেছি। ঘটনার সঙ্গে যেই জড়িত থাক, তার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি হওয়া দরকার।

বদরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা (টিএইচও) আব্দুল হাই বলেন, শিশুটিকে প্রাথমিকভাবে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। তার উন্নত চিকিৎসার জন্য রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। বদরগঞ্জ থানার ওসি আনিছুর রহমান বলেন, এ ঘটনায় এখনও কেউ অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

six + 6 =