বরখাস্ত সেনা কর্মকর্তা হাসিন কে তুলে নেওয়ার অভিযোগ

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

বরখাস্ত লেফটেন্যান্ট কর্নেল হাসিনুর রহমানকে ঢাকার পল্লবীতে তার বাসা থেকে তুলে নেয়ার অভিযোগ করেছে তার পরিবার।হাসিনুর রহমান সেনাবাহিনীকে চাকরির সময় রাষ্ট্রদ্রোহের মামলায় দণ্ডিত হয়ে পাঁচ বছরের জেল খেটে ২০১৪ সালে মুক্তি পেয়েছিলেন। চাকরি জীবনে কর্ণেল (অবঃ) হাসিন সর্বশেষ আর্মি ট্রেনিং অ্যান্ড ডকট্রিন কমান্ডে কর্মরত ছিলেন।  জঙ্গী তৎপরতায় সম্পৃক্ততা পেলে রাষ্ট্রদ্রোহ মামলায় অভিযুক্ত হন এবং এর পর চাকরি হারান তিনি।

বুধবার রাত ১০টার দিকে পল্লবীতে মিরপুর ডিওএইচএসের বাসার সামনে থেকে হাসিনুরকে তুলে নেওয়া হয় বলে তার শ্যালক ওয়াকিল আহমেদ জানিয়েছেন। তিনি বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “তিনি তার এক বন্ধুর সাথে দেখা করতে যাচ্ছিলেন। বাসার নিচে ডিবি পুলিশের জ্যাকেট পরা কয়েকজন তাকে ধরে নিয়ে যায়।”
তাকে হাসিনুরকে তুলে নিয়েছে, এ বিষয়ে পুরোপুরি নিশ্চিত না হলেও ওয়াকিলের ধারণা, গোয়েন্দা পুলিশই তাকে নিয়ে গেছে।

হাসিন এক সময় র‌্যাব-৫ ও র‌্যাব-৭ এর অধিনায়ক ছিলেন। তিনি বিজিবিতেও ছিলেন কিছু কাল।

বিষয়টি নিয়ে কথা বলতে গোয়েন্দা পুলিশের একাধিক কর্মকর্তাকে ফোন করা হলেও কারও কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি।
পল্লবী থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মইনুল কবীর সাংবাদিকদের বলেন, “হাসিনুর রহমানকে তুলে নেওয়ার খবর আমরা পেয়েছি। এ বিষয়ে সংশ্লিষ্টরা কাজ করছেন।”
নিরাপদ সড়কের দাবিতে শিক্ষার্থীদের আন্দোলন ঘিরে দেশেকে অস্থিতিশীল করার ষড়যন্ত্র হয়েছিল বলে সরকার দাবি করার পর দু’দিন আগে আলোকচিত্রী শহিদুল ইসলামকেও তুলে নেয়া হয়েছিল। পরে তাকে তথ্য প্রযুক্তি আইনের মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে আদালতে নেয় ডিবি । বিডি  নিউজ

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

3 × 2 =