বাংলাদেশে গণমাধ্যমের স্বাধীন ও দ্রুত বিকাশ দক্ষিণ এশিয়ার মধ্যে দৃষ্টান্ত-নেপালে তথ্যমন্ত্রী

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

নেপাল সফরের দ্বিতীয় ও শেষদিন শুক্রবার সকালে সেদেশের তথ্য ও যোগাযোগ মন্ত্রী শ্রেধান রাইয়ের সাথে বৈঠকে মিলিত হয়েছেন তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু।

দু’দেশের জনগণের মধ্যে তথ্য ও সংবাদ আদান-প্রদান বৃদ্ধিতে সরকারি বার্তা সংস্থাগুলোর মধ্যে সমঝোতা স্মারক সাক্ষর ও সাংবাদিকদের সফর বিনিময়ের বিষয়ে নীতিগতভাবে একমত হন তারা। তথ্যমন্ত্রী ইনু এসময় বাংলাদেশ প্রেস ইনস্টিটিউটের মাধ্যমে নেপালের সাংবাদিকদের প্রশিক্ষণে সহযোগিতারও প্রস্তাব দেন।

নেপালের তথ্য ও যোগাযোগ মন্ত্রী শ্রেধান রাই বলেন, ‘বাংলাদেশে গণমাধ্যমের স্বাধীন ও দ্রুত বিকাশ দক্ষিণ এশিয়ার জন্য একটি উদাহরণস্বরূপ। প্রধানমন্ত্রীর সুযোগ্য নেতৃত্ব ও তথ্য মন্ত্রণালয়ের কর্মনিষ্ঠার প্রতি আমাদের আন্তরিক অভিনন্দন। নেপাল-বাংলাদেশ সহযোগিতা দু’দেশকেই তথ্য ও যোগাযোগ ক্ষেত্রে সমৃদ্ধতর করবে।”
83e66297-424c-44d1-b1d4-35a501db97f1

নেপালে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মাশফি বিনতে শামস, জাসদের আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক শামীম আহমেদ, বাংলাদেশ দূতাবাসের দূতালয় প্রধান মোহাম্মদ বারিকুল ইসলাম এবং নেপালের উর্ধবতন কর্মকর্তাবৃন্দ এসময় উপস্থিত ছিলেন।
এর আগে নেপালের সাবেক প্রধানমন্ত্রী মাধব কুমারের সাথে প্রাত:রাশ বৈঠকে বাংলাদেশের তথ্যমন্ত্রী দু’দেশের বন্ধুত্বপূর্ণ বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ককে আরো এগিয়ে নেয়ার লক্ষ্যে আন্ত:সীমান্ত পণ্য পরিবহণ, বিদ্যুৎখাতে সহযোগিতা, পর্যটনের প্রসার ও দু’দেশের মধ্যে তথ্য ও সংবাদ আদান প্রদানের বিষয়ে তারা আলোচনা করেন। এছাড়া নেপালের সাবেক বাণিজ্যমন্ত্রী সুনীল থাপার সাথেও সৌজন্য সাক্ষাতে মিলিত হন হাসানুল হক ইনু।

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

three × five =