বাংলার প্রচলন বাড়লেই উচ্চ আদালতে ব্যবহারও সহজতর হবে: ডেপুটি স্পিকার

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

ডেপুটি স্পিকার অ্যাডভোকেট ফজলে রাব্বী মিয়া বলেছেন, সর্বস্তরে বাংলা ভাষার বহুল প্রচলন ও সাহিত্য চর্চা হলেই বাংলা ভাষার ব্যবহার উচ্চ আদালতে আরো সহজ হবে।

আজ শনিবার রাজধানীতে জাতীয় প্রেসক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে স্বেচ্ছাসেবী মানবাধিকার সংগঠন হিউম্যানিটি ফাউন্ডেশনের আয়োজনে ‘উচ্চ আদালতের সর্বস্তরে বাংলা ভাষা প্রচলন’ শীর্ষক মুক্ত আলোচনায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এ কথা বলেন।

মাতৃভাষাকে রাষ্ট্রীয় ভাষা হিসেবে প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে দামাল ছেলেরা প্রাণ দিয়েছে। নয় মাস যুদ্ধ করে বাংলাদেশে স্বাধীনতা এনেছে। এ অর্জন কম নয় উল্লেখ করে তিনি বলেন, বাংলা ভাষায় রায় লিখতে আরো একটি মুক্তিযুদ্ধের প্রয়োজন নেই। সকলকে প্রত্যয়ী হয়ে এগিয়ে আসার অভিপ্রায় থাকতে হবে,তবেই বীরের জাতি বাঙালীরা সর্বস্তরে বাংলাভাষার ব্যবহার আরও নিশ্চিত করতে পারবে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর ড. সালাউদ্দিন আহমেদের সভাপতিত্বে সম্পন্ন এ অনুষ্ঠানে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন প্রথম আলোর যুগ্ম-সম্পাদক মিজানুর রহমান খান। আলোচনায় অংশ নেন নির্বাচন কমিশনার মোহাম্মদ আবদুল মোবারক, ভাষা সংগ্রামী আহমদ রফিক, সুপ্রিম কোর্ট বার কাউন্সিলের সদস্য জেড আই খান পান্না, এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের অধ্যাপক আবুল কাশেম মো. ফজলুল হক।

মুক্ত আলোচনায় বক্তব্যের সারসংক্ষেপ তুলে দিকনির্দেশনামূলক বক্তব্য রাখেন সংগঠনের চেয়ারম্যান ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজ বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. এ আই মাহবুব উদ্দিন আহমেদ এবং অ্যাডভোকেট মুহাম্মদ শফিকুর রহমান।

আবুল কাশেম মো. ফজলুল হক বলেন, বিচার বিভাগে বাংলা ভাষা প্রচলনের জন্য, বাংলা ভাষার প্রতিষ্ঠার জন্য দেশের সর্বস্তরে আন্দোলন করা দরকার।

আহমদ রফিক বলেন, বাংলাভাষা একটি শক্তিশালী ভাষা, এবং সর্বত্র বাংলাভাষার ব্যবহার বা প্রচলন নিশ্চিত করা গুরুত্বপূর্ণ।

শিক্ষাব্যবস্থায় বাংলা ভাষার প্রসার আরো বাড়ানোর উপরও গুরুত্ব দেন তিনি।

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

four − three =