বিনা টিকেটে ইউএসবাংলার ফ্লাইটে বোরখাপরা তরুণী:নিরাপত্তা প্রশ্নে শঙ্কিত যাত্রীরা

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

US bangla_640x360_bbc_nocreditচট্টগ্রামগামী ইউএসবাংলার ফ্লাইটে টিকেট বিহীন এক তরুণী উঠে পরলে ফ্লাইটটি সাময়িকভাবে স্থগিত করা হয়। কিন্তু এতগুলো নিরাপত্তা স্তর পেরিয়ে একেবারে বিমানের মধ্যে প্রবেশ করা, আবার একটিই মাত্র সিট খালি থাকার মতো কাকতালীয় ঘটনা কী করে ঘটতে পারে? এসব প্রশ্নের কোন জবাব দিতে পারলেন না সংশ্লিষ্ট বিমান কর্তৃপক্ষ বা বিমানবন্দরের নিরাপত্তা কর্মকর্তারা । প্রশ্ন উঠেছে , তবে কি বোরখা পরলেই ছেড়ে দেন নিরাপত্তা কর্মীরা?

শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে সন্ধ্যা সাড়ে সাতটায় এই ঘটনা ঘটে।এর প্রায় দুই ঘন্টা পর একই ফ্লাইটে যাত্রীদের চট্টগ্রামে পাঠানোর ব্যবস্থা করা হয়। শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের আর্মড পুলিশের সহকারী পুলিশ সুপার আলমগীর হোসেন জানতে পারেন বোরখা পরিহিত এক তরুণী বিনা টিকেটে  ইউএসবাংলার ফ্লাইটে উঠে গেছেন। যাত্রীদের নিরাপত্তার স্বার্থে অনুসন্ধানের জন্যে তাৎক্ষণিকভাবে  ফ্লাইটটি থামানো হয়। এসময় বোরখা পরিহিত ওই তরুণীর উপস্থিতির কারণে যাত্রীদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে।

এপিবিএন কর্মকর্তা আলমগীর হোসেন  সাংবাদিকদের জানান মঙ্গলবার সন্ধ্যা সাতটা চল্লিশ মিনিটের  ফ্লাইটে বিমানবালারা প্লেনের মধ্যে চূড়ান্ত একটি গণনা দেয়ার সময় একজন যাত্রী বেশি থাকায় তারা সবার বোর্ডিং কার্ড দেখাতে বলেন। সেসময় ঐ তরুণীটি কোন কার্ড দেখাতে পারেননি। পরে সব যাত্রীকে নামিয়ে অন্য একটি ফ্লাইটে চট্টগ্রামে পাঠানোর ব্যবস্থা করেন বিমান কর্তৃপক্ষ। আলমগীর হোসেন আরও বলেন, ঐ তরুণীকে আটক করার পর তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। সেসময় তার কথাবার্তা শুনে কর্মকর্তাদের মনে হয়েছে তিনি মানসিক ভারসাম্যহীন। মেয়েটির যশোরে বাড়ী, তবে তিনি ঢাকায় থাকতেন। তিনি একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়তেন। তাকে জিজ্ঞাসাবাদের পর তার পরিবারের কাছে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে।

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

two + eight =