ভারত থেকে গরুর মাংস আমদানির প্রস্তাব নাকচ

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

ভারত থেকে গরুর মাংস আমদানির প্রস্তাব নাকচ করেছে বাংলাদেশ প্রাণীসম্পদ মন্ত্রণালয় । প্রয়োজনে প্রতিবেশী দেশ ভারতের থেকে গরুর মাংস আমদানি করা যায় কি না, ব্যবসায়ীদের এই প্রস্তাব শুরুতেই নাকচ করে দেয় প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়। প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের সচিব মাকসুদুল হাসান ব্যবসায়ীদের জানান, এর ফলে বাংলাদেশের মাংস বিক্রেতারা ক্ষতিগ্রস্ত হবেন। সরকারের এই আপত্তির কথা ইতিমধ্যে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়কে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে।

কয়েকদিন আগে ভারত থেকে গরুর মাংস আমদানি নিয়ে ঢাকার ব্যবসায়ী সংগঠন এফবিসিসিআই আগ্রহ প্রকাশ করেছিল। মাংস আমদানি নিয়ে বাংলাদেশের শীর্ষ ব্যবসায়ী সংগঠনের সভাপতি শফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন বলেছিলেন, দেশের বাজারে গরুর মাংসের চাহিদা বেড়েছে। একসঙ্গে পাল্লা দিয়ে বেড়েছে দাম। চাহিদা মেটাতে ভারত থেকে মাংস আমদানি হলে পরিস্থিতি সামাল দেওয়া যাবে। মহিউদ্দিন দাবি করেছিলেন, এই আমদানি বিষয়ে সরকারও আগ্রহী। এফবিসিসিআইয়ের সভাপতির বক্তব্য নসাৎ করে প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের সচিব স্পষ্ট করে জানান, সরকার মাংস আমদানির বিপক্ষে। দু-তিন বছর ধরে বাংলাদেশে মাংস উৎপাদনে হার বৃদ্ধি পেয়েছে। তিনি আরও বলেন, বর্তমানে বাংলাদেশের মাংসের চাহিদা ৭০ লাখ টন। এই চাহিদা অনুযায়ী পুরোটাই এখন উৎপাদন করতে সক্ষম। এই পরিস্থিতি মাংস আমদানি করলে দেশের ব্যবসায়ীরা ক্ষতিগ্রস্থ হবে বলে মনে করছে সরকার।

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

five × 5 =