ভাষাসৈনিক হালিমা খাতুন চলে গেলেন

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail
ভাষাসৈনিক হালিমা খাতুন ৮৬ বছর বয়সে রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন। আজ মঙ্গলবার দুপুর ২টার দিকে করোনারি কেয়ার ইউনিটে (সিসিইউ) তার মৃত্যু হয়।
হৃদরোগ, কিডনি জটিলতা, রক্তদূষণের মতো বিভিন্ন সমস্যা নিয়ে গত শনিবার এই হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক এই শিক্ষক।
তার নাতনি অন্তরা জানান, গত বৃহস্পতিবার গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় হালিমা খাতুনকে রাজধানীর গণস্বাস্থ্য নগর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে অবস্থার অবনতি হলে তাকে ইউনাইটেড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
হালিমা খাতুন ১৯৩৩ সালের ২৫ অগাস্ট বাগেরহাট জেলার বাদেকাড়াপাড়া গ্রামে জন্ম নেন। তার বাবার নাম আবদুর রহিম শেখ ও মা দৌলতুন নেসা। বাদেকাড়াপাড়া প্রাথমিক বিদ্যালয়, মনমোহিনী গার্লস স্কুল, বাগেরহাট প্রফুল্ল চন্দ্র কলেজে পাঠ শেষে তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ইংরেজিতে এমএ এবং পরে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বাংলায় এমএ পাস করেন।
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হয়ে হালিমা খাতুন জড়িয়ে পড়েছিলেন ছাত্র রাজনীতিতে। পরে বাংলা ভাষা আন্দোলনের সংগ্রামেও তিনি জড়িয়ে পড়েন। ১৯৫২ সালের ভাষা আন্দোলনে বিশেষ ভূমিকা পালন করেন।

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

five × one =