মাগুরায়, ফরিদপুরে মাহফুজ আনামের বিরুদ্ধে সমন জারি

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

ডেইলি স্টার সম্পাদক মাহফুজ আনামের বিরুদ্ধে চুয়াডাঙ্গা ও ফরিদপুরে ৬০ কোটি টাকার মানহানি মামলা দায়ের করা হয়েছে। অন্যদিকে মাগুরায় করা মানহানির আরো একটি মামলায় মাহফুজ আনামকে ৮ মার্চ এবং ফরিদপুরের মামলাটিতে ১৫ মার্চ আদালতে হাজির হওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন বিচারক।

এ নিয়ে আজ পর্যন্ত মাহফুজ আনামের বিরুদ্ধে দেশের বিভিন্ন স্থানে মোট ৭৮টি মামলা হলো। এর মধ্যে ২১টিতে তাঁর বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহের অভিযোগ আনা হয়েছে। প্রায় সবকটি মামলার বাদীই হলেন ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ ও তার সহযোগী বা সমমনা সংগঠনের নেতা-কর্মীরা ও সরকারি কৌঁসুলিরা।

গত ৪ ফেব্রুয়ারি রাতে একটি বেসরকারি টেলিভিশনের টক শোতে এক-এগারোর সময় সংবাদ প্রকাশের স্বাধীনতা ও গণমাধ্যমের বিচ্যুতির প্রসঙ্গ উল্লেখ করে মাহফুজ আনাম তাঁর পত্রিকায়ও এমন ত্রুটি-বিচ্যুতি হয়েছিল বলে স্বীকার করেন। এর পরদিন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছেলে এবং তাঁর তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয় নিজের ফেসবুক পেজে এক স্ট্যাটাসে ডেইলি স্টার সম্পাদকের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহের অভিযোগ তুলে তাঁর বিচার হওয়া উচিত বলে মন্তব্য করেন। এর পরদিন ৭ ফেব্রুয়ারি জাতীয় সংসদে কয়েকজন সাংসদ ডেইলি স্টার পত্রিকাটি বন্ধ করে দেয়ার এবং মাহফুজ আনামের পদত্যাগ ও বিচারের দাবি করেন।  এর পরদিন থেকেই মাহফুজ আনামের বিরুদ্ধে একের পর এক মামলা দেওয়া হচ্ছে।

চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামী আইনজীবী পরিষদের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শফিকুল ইসলাম বাদী হয়ে সদর থানার আমলি আদালতে মাহফুজ আনামের বিরুদ্ধে মামলাটি করেন। আদালতের অতিরিক্ত দায়িত্ব পালনকারী মুখ্য বিচারিক হাকিম এ বি এম মাহমুদুল হক মামলা আমলে নিয়ে আগামী ৮ মার্চ আদেশের জন্য দিন ধার্য রাখেন।

গত বৃহস্পতিবার মাগুরায় মাহফুজ আনামের বিরুদ্ধে ৫০ হাজার কোটি টাকার মানহানির অভিযোগে মামলা হয়। বিচারক মামলাটি আমলে নেওয়া ও আদেশের জন্য আগামী ৮ মার্চ তারিখ ধার্য রেখেছিলেন। মামলাটি করেছেন জেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সোহরাব হোসেন।

বাদীর আইনজীবী রাশেদ মাহমুদ আজ বিকেলে সাংবাদিকদের বলেন, বাদী আজ দুপুরে একই আদালতে হাজির হয়ে মামলা গ্রহণ ও আদেশের আবেদন করেন। বিচারক আবেদনটি গ্রহণ করেন এবং মাহফুজ আনামকে আগামী ৮ মার্চ আদালতে হাজির হওয়ার নির্দেশ দেন।

ফরিদপুর জেলা যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক জাহিদ ব্যাপারী বাদী হয়ে আজ বেলা সাড়ে ১১টার দিকে ফরিদপুরের ১ নম্বর আমলি আদালতে মাহফুজ আনামের বিরুদ্ধে মামলাটি করেন। মামলায় ৫০ কোটি ৫ লাখ টাকার মানহানির অভিযোগ আনা হয়েছে।

বাদীর আইনজীবী গোলাম রব্বানী বলেন, বিচারিক হাকিম হামিদুল ইসলাম মামলাটি আমলে নিয়ে মাহফুজ আনামের বিরুদ্ধে সমন জারি করেছেন। মামলার পরবর্তী তারিখ ধার্য করা হয়েছে আগামী ১৫ মার্চ। ওই দিন মাহফুজ আনামকে আদালতে হাজির হতে বলা হয়েছে।

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

thirteen + three =