মৈত্রীর বন্ধন : কলকাতার ২০ শিক্ষক-শিক্ষার্থীর পদযাত্রা ঢাকার পথে

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

১৯৭১ সালের মহান মুক্তিযুদ্ধের  মৈত্রীর বন্ধন অটুট রাখতে  ভারতের কলকাতার ২০ শিক্ষক-শিক্ষার্থী হেঁটে আসছেন ঢাকার পথে। বাংলাদেশের স্বাধীনতা দিবসে মহান শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করে তাঁরা স্বদেশে ফিরে যাবেন। কলকাতার ক্ষুদিরাম বোস সেন্ট্রাল কলেজের  অধ্যক্ষ সুবীর কুমার দত্ত দলটির নেতৃত্ব দিচ্ছেন। ২০ জনের মধ্যে কলেজের শিক্ষক আছেন ৮ জন। বাকি ১২ জন কলেজের ছাত্র ও ছাত্রী।

দলটির সহায়ক সদস্য সুখেন মণ্ডল  বলেন, বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্কে মৈত্রী গড়ে তুলতেই তাঁদের এই কর্মসুচি। ২৬ মার্চ তাঁরা ঢাকায় পৌঁছে বাংলাদেশের স্বাধীনতা দিবসের অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন। তাঁরা একাত্তরের শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাবেন। এছাড়া ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রাঙ্গণে উপস্থিত হবেন। সেখানে রক্তদান কর্মসূচী করার ইচ্ছা আছে তাঁদের। সেটা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের সিদ্ধান্তের ওপর নির্ভর করছে। এরপর তাঁরা ভারতে ফিরে যাবেন।ক্ষুদিরাম বোস সেন্ট্রাল কলেজের হীরকজয়ন্তী এবং মৈত্রী দেশ এই কর্মসূচির আয়োজক বলে জানান তিনি।

শুক্রবার দলটির যাত্রা শুরু হয় বেশ ঘটা করে। পশ্চিমবঙ্গের ক্রেতা সুরক্ষা দপ্তরের মন্ত্রী সাধন পান্ডে উপস্থিত ছিলেন। দলটি প্রথম দিন ভারতের পেট্রাপোল পর্যন্ত পৌঁছাতে সক্ষম হয়। সেখানে তারা রাত যাপন করে। রোববার সকালে রওনা দিয়ে গতকাল বিকেল সাড়ে পাঁচটা নাগাদ তাঁরা ঝিনাইদহে পৌঁছান।

গতকাল বিকেল সাড়ে চারটার দিকে পদযাত্রী দলটির দেখা মেলে ঝিনাইদহ-যশোর মহাসড়কের বিষয়খালী এলাকায়। তখন ছোট ছোট কয়েকটি দলে বিভক্ত হয়ে তারা ঝিনাইদহ শহরের দিকে আসছিল। তাঁদের মধ্যে কেউ হাঁটছিলেন, কেউ আলতোভাবে দৌড়াচ্ছিলেন। সবার গায়ে ভারতীয় জাতীয় পতাকার রঙে তৈরি গেঞ্জি।

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

4 + 9 =