রাজধানীতে নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন আনসার-আল ইসলামের তিন সদস্য গ্রেফতার, জঙ্গিবাদী বই ও লিফলেট উদ্ধার

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

রাজধানীর বসুন্ধরা ও সবুজবাগ এলাকা থেকে নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন আনসার-আল ইসলামের তিন সদস্যকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব-১১) এর সদস্যরা। শনিবার মধ্যরাতে নগরীতে এই অভিযান চালায় র‌্যাব।

গ্রেফতারকৃতরা হচ্ছে- আহমদুল্লাহ পাটোয়ারি ওরফে ইমরান ওরফে ফরহাদ হোসাইন ওরফে সামিউল (২১), সিয়াম ওরফে জাবালে নূর ওরফে মোসাদ (২৪) ও মুফতি হোসাইন আহমেদ ওরফে বেলাল (৩২)। তাদের মধ্যে সিয়াম ওরফে জাবালে নূর ওরফে মোসাদ বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় ইন্ডিপেনডেন্ট ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশের (আইইউবি) কম্পিউটার সায়েন্স দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র।

গ্রেফতারের সময় তাদের কাছ থেকে জঙ্গিবাদের বই, লিফলেট ও জঙ্গি অর্থায়নের নগদ ২ লাখ টাকা উদ্ধার করা হয়েছে। র‌্যাব-১১ এর উপ-অধিনায়ক মেজর আশিক বিল্লাহ এই তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযানে চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করা হয়েছে। আহমদুল্লাহ পাটোয়ারি আনসার-আল ইসলামের ঢাকা দক্ষিণের সমন্বয়ক হিসেবে কাজ করে আসছিল। মুফতি হোসাইন আহমেদ মসজিতের ইমামতি করেন। এ সুবাদে দাওয়াতি কাজে মুফতি হোসাইন আহমেদকে সঙ্গে নিয়ে আহমদুল্লাহ বিভিন্ন স্থানে যেতেন।

তিনি আরও জানান, সিয়াম ওরফে জাবালে নূর ওরফে মোসাদ (২৪) রাজধানীর বসুন্ধরা আবাসিক এলাকার বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় ইন্ডিপেনডেন্ট ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশের (আইইউবি) কম্পিউটার সায়েন্স দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র। আহমদুল্লাহর মাধ্যমে আনসার আল ইসলামে যোগদানের পর সে বসুন্ধরা এলাকায় দাওয়াতি কাজের দায়িত্ব পালন করে আসছিল। তার কাজ ছিল মূলত যুবক ও কিশোরদের জঙ্গিবাদে জড়ানো।

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

5 + 15 =