‘রামায়ণ’ পরীক্ষায় প্রথম মুসলিম কিশোরী

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

দক্ষিণ ভারতীয় রাজ্য কর্ণাটকে ‘রামায়ণ’-এর উপর একটি পরীক্ষায় প্রথম হয়ে সেখানকার পুত্তুর জেলার এক মুসলিম কিশোরী ফাতিমা রাহিলা সবাইকে অবাক করে দিয়েছে।

কর্নাটকের পুত্তুর জেলার নবম শ্রেণীর ছাত্রী ফাতিমা ‘রামায়ণ’ বিষয়ক পরীক্ষার ফলাফলে তার হিন্দু সহপরীক্ষার্থীদেরকে পেছনে ফেলে সবাইকে তাক লাগিয়ে দেয়। এ পরীক্ষায় সে নম্বর পায় ৯৩ শতাংশ।

গত নভেম্বরে পরীক্ষাটি নিয়েছিল ভারত সংস্কৃতি প্রতিষ্ঠান। কর্নাটক-কেরল সীমানার ছোট্ট একটি গ্রামের এই কিশোরীও সে-পরীক্ষায় বসেছিল আর পাঁচজনের মতো। কিন্তু সাড়া জাগানো ফলাফল করার সুবাদে এখন তার নাম দেশ জুড়ে ছড়িয়ে পড়েছে।

‘রামায়ণ’, ‘মহাভারত’-এর মত পৌরাণিক মহাকাব্যগুলো যে শুধু হিন্দুদের ব্যক্তিগত ধর্মীয় সম্পত্তি নয়, ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে এগুলো যে সকল ভারতবাসীর জাতীয় সম্পদ ও অধিকার, সেটাই যেন চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দিল ফাতিমা রাহিলার এই কৃতিত্ব।

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

18 + 2 =