‘সম্পূর্ণ গুন্ডামি করে আমাদের বাড়ি দখল করে নেন তাঁরা।এটি কর্মফল। ’-মাহজাবিন খালেদ

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

বিএনপি’র আমলে সম্পূর্ণ গুন্ডামি করে খালেদ মোশাররফের পরিবারকে বাড়ি ছাড়তে বাধ্য করা হয়েছিল বলে মন্তব্য করেছেন তাঁর মেয়ে মাহজাবীন খালেদ এমপি । বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মওদুদ আহমদের গুলশানের বাড়ি উচ্ছেদ বিষয়ে মাহজাবীন বলেন, খালেদা জিয়া  মওদুদের দখল মুক্ত বাড়ির সামনে গিয়ে নাটক করে এসেছেন। এ নাটক জনগণ বোঝে। বিএনপির নেত্রীর দাবি, সরকার দমনপীড়ন শুরু করেছে। দমনপীড়ন আওয়ামী লীগের সরকার করে না। দমনপীড়নের রাজনীতি করেছেন খালেদা জিয়া নিজে।

আজ বৃহস্পতিবার সংসদে পয়েন্ট অব অর্ডারে দাঁড়িয়ে তিনি এ কথা বলেন।মাহজাবীন বলেন, ‘আমার বাবা জেনারেল খালেদ মোশাররফ একজন মুক্তিযোদ্ধা ও আর্মি অফিসার ছিলেন। মুক্তিযুদ্ধে বীর নায়ক খালেদ মোশাররফের স্ত্রী হিসেবে আমার মা’কে সরকার যে বাড়ি প্রদান করে, সেখান থেকে উচ্ছেদের জন্য বেগম জিয়া তাঁর শাসনকালে একের পর এক প্রতিহিংসামূলক পদক্ষেপ গ্রহণ করেছেন।২০০৫ সালে খালেদা জিয়ার বোনের ছেলে মাইক্রোবাসে করে গুন্ডা ভাড়া করে এনে বাড়ি খালি করার জন্য আমার মাকে হুমকি দেন। পরে উচ্ছেদ করেন এই বীর শহীদের পরিবারকে।

মাহজাবীন বলেন, ‘আমার বাবা জেনারেল খালেদ মোশাররফ একজন মুক্তিযোদ্ধা ও আর্মি অফিসার ছিলেন। মুক্তিযুদ্ধে বীর নায়ক খালেদ মোশাররফের স্ত্রী হিসেবে আমার মা’কে সরকার যে বাড়ি প্রদান করে, সেখান থেকে উচ্ছেদের জন্য বেগম জিয়া তাঁর শাসনকালে একের পর এক প্রতিহিংসামূলক পদক্ষেপ গ্রহণ করেছেন।
২০০৫ সালে খালেদা জিয়ার বোনের ছেলে মাইক্রোবাসে করে গুন্ডা ভাড়া করে এনে বাড়ি খালি করার জন্য আমার মাকে হুমকি দেন। হুমকি দিয়ে ক্ষ্যান্ত হননি। বাড়ি থেকে সম্পূর্ণ অবৈধভাবে আমাদের বের করে দিয়েছেন। আদালতের কোনো আদেশ ছিল না, ছিল না কোনো সরকারি বা আমলাতান্ত্রিক জটিলতা। সম্পূর্ণ গুন্ডামি করে সন্ত্রাসীদের মতন এসে আমাদের বাড়ি দখল করে নেন তাঁরা।’
মাহজাবীন বলেন, এটি কর্মফল। সৃষ্টিকর্তা দুনিয়াতে বিচার দেখান। খালেদা জিয়াকে ক্যান্টনমেন্ট ছাড়তে হয়েছে। গতকাল (বুধবার) মওদুদ আহমদকেও তাঁর বাড়ি ছাড়তে হয়েছে। মওদুদ আহমদ একজন আইনজীবী হয়েও মামলায় হেরে তা মানতে পারছেন না।”

 

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

sixteen + nine =