সারা দেশে ডেঙ্গুর প্রকোপ কমাতে হাইকোর্টের নির্দেশ

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

ডেঙ্গুতে ব্যাপক হারে এখনো মৃত্যুর ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন হাইকোর্ট। সারা দেশে ডেঙ্গুর প্রকোপ কমানোর জন্য জরুরি ভিত্তিতে সংশ্লিষ্টদের পদক্ষেপ নেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন বিচারপতি তারিক উল হাকিম ও বিচারপতি মো. সোহরাওয়ার্দীর সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ।

মশাবাহিত রোগ ছড়ানো বিষয়ে গণমাধ্যমে আসা প্রতিবেদন বিবেচনায় নিয়ে গত ১৪ জুলাই হাইকোর্ট স্বতঃপ্রণোদিত রুলসহ আদেশ দেন। ডেঙ্গু ও চিকুনগুনিয়া নির্মূলে কী পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে, তা এক সপ্তাহের মধ্যে হলফনামা আকারে অ্যাটর্নি জেনারেলের কার্যালয়ের মাধ্যমে বিবাদীদের জানাতে বলা হয়।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল কাজী মাইনুল হাসান সাংবাদিকদের বলেন, ডেঙ্গুর প্রকোপ কমানোর জন্য ঢাকাসহ দেশজুড়ে অতি সত্বর কার্যকর পদক্ষেপ নিতে বলেছেন হাইকোর্ট। আগামী ১৬ অক্টোবর প্রতিবেদন জমা দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন।

শুনানিতে ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেলের উদ্দেশে আদালত বলেন, প্রতিদিনই ডেঙ্গুতে রোগী মারা যাচ্ছে। সংবাদপত্র এবং টেলিভিশন এ খবর প্রকাশ করছে।

তখন ডিএজি মাইনুল হাসান আদালতের কাছে দাবি করেন, ডেঙ্গু প্রতিরোধে প্রচার-প্রচারণা অব্যাহত আছে। ডেঙ্গুর প্রকোপ কমানোর জন্য পদক্ষেপ নেয়া হচ্ছে।
তখন আদালত বলেন, ঢাকার বাইরে ডেঙ্গুর প্রকোপ বাড়ছে। ডেঙ্গুর প্রতিরোধে দীর্ঘ মেয়াদি কী পরিকল্পনা আছে?
উত্তর সিটি করপোরেশনের আইনজীবী তৌফিক ইনাম আদালতকে বলেন, বাড়িতে বাড়িতে চিরুনি অভিযান চালানো হচ্ছে। এক দিনে ৯ হাজার ৬০০ বাড়িতে অভিযান চালানো হয়েছে। ডেঙ্গুর লার্ভা পাওয়ায় জরিমানা করা হচ্ছে।

আদালত তখন এই আইনজীবীর কাছে জানতে চান, ‘উন্নতি কোথায়?’
তখন তৌফিক ইনাম বলেন, ডেঙ্গুর প্রকোপ কমে আসছে। অফিস–আদালত, স্কুল-কলেজ বন্ধ করে একযোগে মশক নিধন অভিযান চালালে ভালো ফল আসতে পারে।

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

10 − five =