সোশ্যাল মিডিয়ায় মেয়েদের নিয়ে অশালীন ছবি ও পোস্ট,শাস্তির বিধান নিয়ে ভারতের কেন্দ্রীয় মহিলা ও শিশুকল্যাণ মন্ত্রণালয়

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

সোশ্যাল মিডিয়ায় এমন অনেকেই রয়েছেন যাঁরা মহিলাদের নিয়ে অশোভন ছবি বা কোনও লেখা পোস্ট করতে ভালবাসেন। বর্তমানে যা অসম্ভবভাবে বেড়ে গিয়েছে। কিন্তু এবার থেকে তা করতে হলে একটু ভেবে করতে হবে ভারতে। এবার থেকে সোশ্যাল মিডিয়ায় মহিলাদের নিয়ে কোনও অশোভন বা অশালীন কিছু দেখলে তা হতে পারে শাস্তিযোগ্য, এরকম বিধান নিয়ে আসল ভারতের কেন্দ্রীয় মহিলা ও শিশুকল্যাণ মন্ত্রণালয় ।

হোয়াটস অ্যাপ, ইনস্টাগ্রাম, স্ন্যাপচ্যাট এবং স্কাইপির মত ডিজিটাল মেসেজিংয়ে যদি মহিলাদের নিয়ে কেউ কোনও অশালীন মন্তব্য করে বা ছবি দেয় তবে তা শাস্তিযোগ্য অপরাধ হবে। যে সব ব্যবহারকারীরা এইসব সোশ্যাল মিডিয়ায মেয়েদেরকে অশালীনভাবে উপস্থাপনা করবে, তাদের অ্যাকাউন্ট বেআইনি বলে ঘোষণা করা হবে।

মহিলাদের অশালীনভাবে উপস্থাপনা (‌প্রতিরোধ)‌ ১৯৮৬ সালের এই বিলটি জাতীয় মহিলা কমিশনের উদ্যোগে সংসদের স্ট্যান্ডিং কমিটিতে নিয়ে আসা হয় এবং তা পাস করানো হয়। এই বিলটি আধুনিক প্রযুক্তিকে মাথায় রেখে আনা হয়েছিল। সম্প্রতি এই বিলটি সংশোধন করা হয়েছে।

সংশোধনে বলা হয়েছে, স্কাইপি, হোয়াটস অ্যাপ, চ্যাট অন, স্ন্যাপচ্যাট সহ বিভিন্ন সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইটে মেয়েদের কোনও অশালীন ছবি বা কোনও পোস্ট (‌বিজ্ঞাপন, প্রকাশন, লেখা, চিত্র, বা অন্য কোনওভাবে)‌ নজরে আসলে সেই ব্যক্তির অ্যাকাউন্ট সঙ্গে সঙ্গে বন্ধ করে দেওয়া হবে। সেই ব্যক্তির বিরুদ্ধে আইনত ব্যবস্থাও নেওয়া হবে। এই আইন এসএমএস এবং এমএমএসের ক্ষেত্রেও প্রযোয্য। ২০১২ সালের ডিসেম্বরে ভারতের রাজ্যসভায় এই বিলটি অনুমোদিত হয়েছে।

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

eighteen + fifteen =