সোহরাওয়ার্দীতে ক্যান্সার রোগীদের জন্য ৬০ শয্যার এসি ওয়ার্ড

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ক্যান্সার রোগীদের জন্য শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত ৬০ শয্যা বিশিষ্ট অত্যাধুনিক ‘টার্কিশ-বাংলাদেশ ফ্রেন্ডশীপ ওয়ার্ড নির্মাণ করা হয়েছে। এটি চলতি মাসেই উদ্বোধন করা হবে।

টার্কিশ কো-অপারেশন এন্ড কর্ডিনেশন এজেন্সির (টিকা) সহযোগিতা ও স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের অনুমোদনে তুরস্ক সরকারের আর্থিক অনুদানে ২০১৬ সালে হাসপাতালের ৩ নম্বর ওয়ার্ডের উত্তর-পশ্চিম দিকে ক্যান্সার রোগীদের জন্য এ ওয়ার্ডের নির্মাণ কাজ শুরু হয়।
এ ওয়ার্ড চালু হলে ৬ টা বেডে ক্যান্সার আক্রান্ত রোগীরা ডে-কেয়ার সুবিধায় কেমোথেরাপি নিতে পারবেন। অন্য ৪৫ টা বেডেও ক্যান্সার আক্রান্ত রোগীরা চিকিৎসা সেবা পাবেন। সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক অধ্যাপক ডা. উত্তম কুমার বড়–য়া বাসসকে জানান, এই হাসপাতালের চিকিৎসা সেবার মান ও পরিবেশ উন্নয়নে কাজ করছি। শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত এই ওয়ার্ডটি আধুনিক সরঞ্জামাদি দিয়ে তৈরি করা হয়েছে। এ ওয়ার্ডে বিভিন্ন বিশ্বমানের চিকিৎসা সুবিধা রাখা হয়েছে। ক্যান্সার আক্রান্ত রোগী ও আগতদের ক্যান্সার বিষয়ে গণসচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে অটো ডিসপ্লে সিস্টেম এবং চিকিৎসক চার্টার রাখার ব্যবস্থাও চালু করা হবে। থাকবে আলাদা রিসেপশনসহ নানা আধুনিক সুবিধা ।

অন্যদিকে আগত রোগীদের শারীরিক সেবার পাশাপাশি মানসিক সেবা নিশ্চিত করতে ওয়ার্ডের সামনে একটি বাগান করার কাজ চলছে। যাতে এ ধরনের রোগীরা মানসিক অবসাদে না ভোগেন।

তিনি বলেন, দেশের কোন আধুনিক বড় হাসপাতালে এই ধরণের অত্যাধুনিক চিকিৎসা ব্যবস্থা নেই। ক্যান্সার রোগীদের জন্য এই ওয়ার্ড সুখবর বয়ে আনবে। দেশের বাইরে গিয়ে আর এ রোগের চিকিৎসা করার প্রয়োজন হবে না। ড.উত্তম কুমার বড়–য়া বলেন, দক্ষ ও যোগ্য ক্যান্সার রোগ বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকরা এখানে রোগীর সেবা প্রদান করবেন। ওয়ার্ডটি হস্তান্তর হওয়ার পর সরকারী বিধিমালা অনুসারে এই আধুনিক ওয়ার্ডটি পরিচালিত হবে।

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

2 × 5 =