হুমায়ুন আজাদ হত্যা মামলার সাক্ষ্যগ্রহণ আবার পেছালো

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

সাক্ষী আদালতে অনুপস্থিত থাকায়  রাষ্ট্রপক্ষের আবেদনের প্রেক্ষিতে প্রথাবিরোধী লেখক ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের শিক্ষক ড. হুমায়ুন আজাদ হত্যা মামলার সাক্ষ্যগ্রহণ আবার  পিছিয়ে গেছে ।বৃহস্পতিবার রাষ্ট্রপক্ষের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ঢাকার চতুর্থ অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ রুহুল আমীন এ মামলার সাক্ষ্যগ্রহণ আগামী ৩০ এপ্রিল ধার্য করেছেন।২০০৪ সালের ২৭ ফেব্রুয়ারি অমর একুশে বইমেলা থেকে বাসায় ফেরার পথে বাংলাদেশ পরমাণূ শক্তি কমিশনের সামনে সন্ত্রাসী হামলার শিকার হন হুমায়ুন আজাদ।এ সময় তাকে চাপাতি ও কুড়াল দিয়ে কুপিয়ে মাথায়, মুখে ও ঘাড়ের উপর মারাত্মক জখম করে। ঘটনার পরদিন হুমায়ুন আজাদের ভাই মঞ্জুর কবির রমনা থানায় হত্যা চেষ্টা মামলা দায়ের করেন। পরে সম্পূরক অভিযোগপত্র দাখিলের মধ্য দিয়ে এটি হত্যা মামলায় পরিণত হয়।২০১২ সালের ৩০ এপ্রিল সিআইডি’র পরিদর্শক লুৎফর রহমান উক্ত ৫ আসামিকে অভিযুক্ত করে আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন। চার্জশিট দাখিলের মাধ্যমে হত্যাকাণ্ডের ৮ বছর ৩ মাস পর ড. হুমায়ুন আজাদ হত্যা মামলার বিচার শুরু হবার পথ সুগম হয়।

কারাগারে আটক মামলার ২ আসামি জেএমবির সূরা সদস্য আনোয়ার আলম ও হাফিজ মাহমুদকে বৃহস্পতিবার কারাগার থেকে আদালতে হাজির করা হয়। অপর দুই আসামি মিজানুর রহমান ও সালেহীসকে ২০১৪ সালের ২৩ ফেব্রুয়ারি ছিনিয়ে নেয় জঙ্গিরা। তাদের অনুপস্থিতিতেই মামলার কার্যক্রম চলছে।অপর আসামি নুর মোহাম্মদ ওরফে সাবু শুরু থেকেই পলাতক আছেন। মামলাটির ৫৮ জন সাক্ষির মধ্যে ৩৩ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ শেষ হয়েছে।এর আগে হুমায়ুন আজাদের ভাই মঞ্জুর কবির, আগামী প্রকাশনীর প্রকাশক ওসমান গণি, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ঘটনাকালীন এলএলবি অনার্সের ছাত্র অ্যাডভোকেট এসএম শফিকুর রহমান আশিক, ড. হুমায়ুন আজাদের স্ত্রী লতিফা আজাদ , কবি মোহন রায়হান ও কবি- সাংবাদিক নাসির আহমেদ মামলাটিতে সাক্ষ্য দিয়েছেন ।

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

10 − ten =