২২তম প্রধান বিচারপতি হলেন সৈয়দ মাহমুদ হোসেন

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

প্রধান বিচারপতি পদে নিয়োগ পেয়েছেন আপিল বিভাগের বিচারক সৈয়দ মাহমুদ হোসেন।রাষ্ট্রপতির প্রেসসচিব মো. জয়নাল এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।দেশের ২২তম প্রধান বিচারপতি নিয়োগের আদেশে শুক্রবার সই করেছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ। শনিবার সন্ধ্যায়  তাঁর শপথ অনুষ্ঠান হবে।

এরপর বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনকে দায়িত্ব বুঝিয়ে দিতে হবে বিচারপতি মো. আবদুল ওয়াহহাব মিঞাকে।বিচারক হিসেবে ওয়াহহাব মিঞা ১০ মাস পর অবসরে যাবেন।

সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের চাকরির মেয়াদ আছে আরও তিন বছর।বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের জন্ম ১৯৫৪ সালের ৩১ ডিসেম্বর। বিএসসি ডিগ্রি নেয়ার পর এলএলবি ডিগ্রি নিয়ে ১৯৮১ সালে আইন পেশায় যুক্ত হন তিনি।

নানা নাটকীয়তার মধ্যে বিচারপতি এস কে সিনহা গত নভেম্বরে প্রধান বিচারপতি পদ হতে  পদত্যাগ করার পর থেকে এ পদটি শূন্য ছিল। রাষ্ট্রপতি তখন আপিল বিভাগের জ্যেষ্ঠ বিচারক মো. আবদুল ওয়াহহাব মিঞাকে দায়িত্বটি পালন করে যেতে বলেন। সেই থেকে আপিল বিভাগের জ্যেষ্ঠতম বিচারক হিসেবে প্রধান বিচারপতির দায়িত্ব পালন করছিলেন বিচারপতি ওয়াহহাব মিঞা।

বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনকে প্রধান বিচারপতির দায়িত্বে আনার গুঞ্জন কয়েকদিন ধরেই চলছিল।

২০০১ সালের শুরুতে হাই কোর্ট বিভাগে বিচারকের দায়িত্ব শুরু করেন সৈয়দ মাহমুদ হোসেন। আওয়ামী লীগ সরকার আমলে নিয়োগ পাওয়া সৈয়দ মাহমুদ হোসেন বিএনপি সরকার আমলে ২০০৩ সালে হাই কোর্টের স্থায়ী বিচারক হন। ২০১১ সালে তিনি আপিল বিভাগের বিচারক পদে উন্নীত হন।

বিচারক হিসেবে কাজ শুরুর আগে আওয়ামী লীগ সরকার আমলে ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল হিসেবে কাজ করেন সৈয়দ মাহমুদ হোসেন।

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

19 + seventeen =