জঙ্গি দমন অভিযান শেষ :’আতিয়া মহল’ পুলিশের কাছে হস্তান্তর

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

শেষ হলো দেশের ইতিহাসের দীর্ঘতম জঙ্গিবিরোধী অভিযান। শনিবার রাত থেকে শুরু করে চতুর্থ দিনে মঙ্গলবার বিকেলে সিলেট সিটি কর্পোরেশনের ২৭ নং ওয়ার্ডের আতিয়া মহল ঘিরে ‘অপারেশন টোয়াইলাইট’ সম্পন্ন হয়েছে। একটানা ৪ দিন জঙ্গি দমন অভিযান শেষ করে আলোচিত ‘আতিয়া মহল’ পুলিশের কাছে হস্তান্তর করে সেনাবাহিনী।

রাতে অভিযানের সমাপ্তির ঘোষণা দেওয়া প্রেস ব্রিফিংয়ে সামরিক গোয়েন্দা পরিদপ্তর এর প্রধান ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ফখরুল আহসান বলেন, অপারেশন শেষে বিকেলেই আমরা ক্রাইমসিন হিসেবে পাঁচ তলা ওই ভবনটি পুলিশের কাছে হস্তান্তর করেছি।ওই ভবনে আরো বিাস্ফোরক থাকতে পারে জানিয়ে তিনি বলেন, এখন পুলিশ এগুলো নিষ্ক্রিয় করবে। এজন্য অনেক সময় লাগতে পারে।

এদিকে, ওই ভবনে নিহত চার জঙ্গির মধ্যে দুইজনের মরদেহ সোমবার উদ্ধার করা হলেও বাকী দুইজনের মরদেহ এখনো পরে আছে ভবনটিতে। মঙ্গলবারও তাদের মরদেহ উদ্ধার করা হয়নি। তবে পুলিশের কাছে মরদেহগুলি বুঝিয়ে দেওয়া হয়েছে।

সিলেট মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার রোকন উদ্দিন বলেন, বিকাল সোয়া ৫টায় তারা ওই ভবনের দায়িত্ব বুঝে পেয়েছেন। তিনি বলেন, ভবনটিতে আরো বিস্ফোরক থাকতে পারে বলে তারাও ধারণা করছেন। পুলিশের বোমা নিষ্ক্রিয়করণ ইউনিট এগুলো নিষ্ক্রিয় করতে কাজ করবে।

মোগলাবাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খায়রুল ফজল বলেন, ভবনটিতে এখনো দুটি মরদেহ পড়ে আছে। এগুলো বুধবার উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হবে।

গত বৃহস্পতিবার গভীর রাতে জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে শিববাড়ি পাঠানপাড়ার ওই ভবন ঘিরে ফেলে পুলিশের কাউন্টার টেররিজম ইউনিট। পরে তাদের সঙ্গে যোগ দেয় সোয়াট এবং সেনাবাহিনীর প্যারা কমান্ডো ব্যাটালিয়ন। শনিবার সকালে শুরু হয় চূড়ান্ত অভিযান।

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

five + 1 =