৭ ই মার্চে বাংলামোটরে যৌন হয়রানির ভিডিও ফুটেজ হাতে, ব্যবস্থা হবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

৭ ই মার্চে বাংলামোটরে  একটি মিছিলের মধ্যে পড়ে একদল যুবকের হাতে যৌন নিপীড়নের শিকার হওয়ার কথা নিজের ফেসবুকে এক তরুণী পোস্ট করলে তা ভাইরাল হয়ে যায়। এতে সোচ্চার হন অনেকেই। এ যৌন হয়রানির ঘটনার ভিডিও হাতে এসেছে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।

তিনি বলেছেন, রাজধানীর কয়েক স্থানে ৭ মার্চের জনসভাকে কেন্দ্র করে নারীদের হয়রানি করার ভিডিও ফুটেজ সংগ্রহ করা হয়েছে। ফুটেজ দেখে দোষীদের গ্রেফতারে অভিযান শুরু করেছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। গতকাল রাজধানীর সিরডাপ মিলনায়তনে আয়োজিত এক অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। এ ছাড়া গতকাল আওয়ামী লীগের দফতর উপকমিটির সভায়ও এ বিষয়ে আলোচনা হয়েছে বলে জানা গেছে।

এদিকে বাংলামোটরের ঘটনা প্রসঙ্গে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ওই ছাত্রীর আক্রান্ত হওয়ার ভিডিও ফুটেজটি আমরা হাতে পেয়েছি। দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। তারা যে দলেরই হোক কোনো ছাড় পাবে না। তাদের আইনের আওতায় এনে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এ ছাড়া আওয়ামী লীগের দফতর উপকমিটির সভায়ও এ বিষয়ে আলোচনা হয়েছে।

বুধবার ৭ মার্চ সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে আওয়ামী লীগের জনসভায় রাজধানীর বিভিন্ন জায়গা থেকে মিছিল নিয়ে যোগ দেন দলের নেতা-কর্মীরা। এ ধরনের একটি মিছিল থেকে বাংলামোটরে এক ছাত্রীকে যৌন হয়রানি করা হয় বলে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে প্রকাশ করেন আক্রান্ত ওই ছাত্রী। ফেসবুকে নিজের আক্রান্ত হওয়ার ঘটনার পূর্ণ বিবরণ দেন তিনি। মুহূর্তের মধ্যেই এ বিষয়টি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে তোলপাড় সৃষ্টি করে।

ক্ষোভ দেখা দেয় বিভিন্ন মহলে। এ ছাড়া আরও শ্লীলতাহানির  অভিযোগও পাওয়া যায় ফেসবুকের পোস্টে। ঢাকার একটি কলেজের শিক্ষার্থী ওই তরুণী বিকালে পোস্টটি দেওয়ার পর তিন ঘণ্টায় তার শেয়ার ৫ হাজার ছাড়িয়ে যায়। কলেজ থেকে ফেরার সময় এই জনসভার কারণে বাস না পেয়ে হাঁটতে হাঁটতে বাংলামোটরে আসার পর একটি মিছিলে থাকা একদল যুবক তাকে ঘিরে ফেলে যৌন নিপীড়ন করে বলে ওই তরুণীর অভিযোগ।

তিনি ফেসবুক পোস্টে লিখেছেন, ১৫-২০ জন যুবক তাকে যৌন নিপীড়ন শুরু করলে এক পুলিশ সদস্য তাকে উদ্ধার করে একটি বাসে তুলে দেন। এই পোস্ট মুহূর্তে ভাইরাল হলে শুরু হয় তর্কবিতর্ক। পরে আরেক পোস্টে তিনি লেখেন, ‘পোস্টটা অনলি মি করেছি কারণ পোস্টটা রাজনৈতিক উসকানিমূলকভাবে শেয়ার করা হচ্ছিল। আমি কোনো রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে পোস্টটা দিইনি।

প্লাস আমার কলেজকে জড়ানো হচ্ছিল এই ব্যাপারে। ব্যাপারটার সঙ্গে আমার কলেজের কোনো সম্পর্ক নেই।’ বুধবারের এ ঘটনা নিয়ে গতকাল রাজধানীর সিরডাপ মিলনায়তনে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে জড়িতদের খুঁজে বের করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

three × one =