‘‌৭০ বছর ধরে শিশু ও মহিলারা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন কাশ্মীরে’‌ -মালালা ইউসুফজাইয়ের

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

জম্মু ও কাশ্মীরকে বিশেষ মর্যাদা প্রদানকারী ৩৭০ ধারা বাতিলের পর সেখানকার বর্তমান পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করলেন নোবেল শান্তি পুরস্কার জয়ী মালালা ইউসুফজাই। জানিয়েছেন, ‘‌জম্মু ও কাশ্মীরকে দুটি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে বিভক্ত করার সরকারি সিদ্ধান্তের পর কাশ্মীরের শিশু ও মহিলাদের নিরাপত্তা নিয়ে আমি উদ্বিগ্ন।’‌

মালালা ইউসুফজাই টুইটে বলেন, ‘‌আমি যখন ছোট ছিলাম, এমনকি আমার মা-বাবা যখন ছোট ছিলেন, আমার দাদু-ঠাকুমার তরুণ বয়স থেকেই কাশ্মীরের মানুষ টালমাটাল পরিস্থিতির সঙ্গে যুদ্ধ করছেন।’‌ জম্মু ও কাশ্মীরের শান্তি নিশ্চিত করার জন্য আন্তর্জাতিক মহলের কাছে আহ্বানও জানিয়েছেন ২২ বছরের মালালা।

তিনি বলেন,‘গত ৭০ বছর ধরে কাশ্মীরের শিশু ও মহিলারাই সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। আর বর্তমান দিনেও যে হিংসাপূর্ণ পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে তাতেও সবচেয়ে ঝুঁকিপূর্ণ তাঁদের জীবন। এই সংঘাতের মধ্যে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্থ হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে তাঁদেরই।

ভারত–পাকিস্তান, দুই দেশের মধ্যে যতই মতবিরোধই থাকুক না কেন, আমাদের অবশ্যই সর্বদা মানবাধিকার রক্ষা করতে হবে। শিশু ও মহিলাদের সুরক্ষাকে বেশি গুরুত্ব দিতে হবে। সাত দশকের পুরনো সংঘাতের সমাধানে শান্তিপূর্ণভাবে সমাধানের চেষ্টা করতে হবে।’‌

জম্মু ও কাশ্মীর নিয়ে কেন্দ্রীয় সরকারের এই পদক্ষেপের প্রতিক্রিয়ায় ভারতের সঙ্গে সম্পর্ক হ্রাস ও দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্য স্থগিত করে পাঁচ দফা পরিকল্পনা ঘোষণা করেছিল পাকিস্তানের ইমরান সরকার। ঠিক তারপরের দিনেই ইউসুফজাইয়ের এই প্রতিক্রিয়া মিলল।

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

1 × 2 =